• ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ৬ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী চপলের দিনভর সভা সমাবেশ অনুষ্ঠিত

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত মে ১৪, ২০২৪
সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী চপলের দিনভর সভা সমাবেশ অনুষ্ঠিত

লতিফুর রহমান রাজু.সুনামগঞ্জ: আগামী ৫ জুন অনুষ্ঠিতব্য সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন প্রার্থী গণ উঠান বৈঠক. গণসংযোগ ও পথসভা করে নিজ নিজ আবেদন জানাচ্ছেন। তারই ধারাবাহিকতায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান খায়রুল হুদা চপল গতকাল  সোমবার দিনভর জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের ঝরঝরিয়া. কাইয়ার গাও. বাচ্চু নগর. সৈয়দ পুর. এবং লক্ষণ শ্রী ইউনিয়নের জানি গাও. মদনপুর গোবিন্দ পুর সহ বিভিন্ন এলাকায় পথসভা. গণসংযোগ. উঠান বৈঠক করেছেন।  দুপুর ৩টায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের ঝরঝরিয়াতে বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও ব্যবসায়ী আবু হানিফের বাড়ির উঠানে এক বিশাল উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্হানীয় মুরব্বী ছিদ্দিক আলীর সভাপতিত্বে ও সারোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী খায়রুল হুদা চপল। আর ও বক্তব্য রাখেন জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোকসেদ আলী. মাষ্টার আনোয়ার হোসেন. শিক্ষক জয়নাল আবেদীন. আব্দুল মালেক. বাহার খন্দকার. আবু হানিফ. মোস্তফা আলী. ঈসমাইল হোসেন. নজরুল ইসলাম. শাহীনুর রহমান. কবির আহমদ মোশাহিদ.প্রমুখ।  এ সময় উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সবুজ কান্তি দাশ. সুনামগঞ্জ পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র নুরুল ইসলাম বজলু. সুনামগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাব সভাপতি লতিফুর রহমান রাজু. এডভোকেট আমিনুর রশিদ রনক. শ্রমিক লীগের জেলা সম্পাদক সাইফুল ইসলাম মুবিন. সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা যুবলীগ সভাপতি এহসান আহমেদ উজ্জ্বল সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম উকিল. পিন্টু রায়. কাওছার তালুকদার. এনাম আহমদ. জেবুল আহমদ. সামিয়ান তাজুল. এডভোকেট আমিরুল ইসলাম. জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি দীপংকর কান্তি দে.  সহ সভাপতি সামসুল আবেদীন রাজন. প্রমূখ।
চেয়ারম্যান প্রার্থী চপল বলেন বিগত পাচঁ বছর আমার উপজেলার যে সীমিত বরাদ্দ তা দিয়ে সদর উপজেলার ৯ টি ইউনিয়নের ৮১ টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন মসজিদ. মন্দির. স্কুল কলেজ. মাদ্রাসার উন্নয়ন করেছি. বিভিন্ন সড়ক সেতু ও কালভার্ট নির্মাণ করেছি। করোনা. বন্যা সহ অন্যান্য দুর্যোগ মোকাবিলার জন্য আমি সব সময়ই আপনাদের পাশে ছিলাম। আগামীতেও নদীর উত্তর পাড়ের মানুষের দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবী হালুয়ারঘাট দাড়ার গাও সেতু নির্মাণ ও ডলুরা শুল্ক স্টেশন স্হল বন্দর এর জন্য আমি ও দীর্ঘদিন ধরেই নানা ভাবে কাজ করছি। তৎকালীন এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান সাহেব কে নিয়ে ডলুরা পরিদর্শন করি। এছাড়াও এই দপ্তরে অনেক বার গিয়েছি। সেতুর জন্য ও বর্তমান সংসদ সদস্যের সাথে আমি ও সহযোগিতা করে যাচ্ছি। কারণ এই সেতু নির্মাণ ও স্হল বন্দর হলে এই এলাকার মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হবে। এই এলাকায় প্রচুর সব্জি ও অন্যান্য পণ্য উৎপাদন হয় এগুলোর বাজারজাত সারা দেশে সহজতর হবে। পরে কাইয়ার গাও সহ বিভিন্ন এলাকার মানুষের সাথে গণসংযোগ করেন।