• ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

হামাসের‘অপারেশন আল-আকসা স্টর্ম’,ইসরাইলে নিহত বেড়ে ৪০:আহত ৭৫০ জনের বেশি

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত অক্টোবর ৭, ২০২৩
হামাসের‘অপারেশন আল-আকসা স্টর্ম’,ইসরাইলে নিহত বেড়ে ৪০:আহত ৭৫০ জনের বেশি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ যোদ্ধা ও সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের রকেট হামলা ‘অপারেশন আল-আকসা স্টর্ম’ এ ইসরাইলে নিহত বেড়ে ৪০ জনে দাঁড়িয়েছে। হামলায় আহত হয়েছেন সাত

শনিবার (৭ অক্টোবর) ইসরাইল সরকারের বরাতে আল জাজিরা এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এর আগে হামাসের হামলায় ইসরাইলে অন্তত ২২ জন নিহত হওয়ার খবর দিয়েছিল ইসরাইলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। আহতের সংখ্যা জানিয়েছিল ৫৪৫ জন।

পরে হতাহতের সংখ্যা আপডটে করে ইসরাইল সরকার জানিয়েছে, হামাসের হামলায় এখন পর্যন্ত ৪০ জন নিহত হয়েছেন। আর আহত হয়েছেন ৭৫০ এর বেশি মানুষ। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

এর আগে শনিবার ভোরে আল আকসা মসজিদে হামলা এবং অবৈধ বসতি স্থাপনের জবাব দিতে ইসরাইলে হামলা শুরু করে হামাস। গোষ্ঠীটি এই অভিযানের নাম দিয়েছেন ‘অপারেশেন আল-আকসা স্টর্ম’।

ব্যাপক রকেট হামলার মাধ্যমে ইসরাইলের বিরুদ্ধে এই অভিযান শুরু করে হামাস। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গাজা উপত্যকা থেকে ইসরাইল নিয়ন্ত্রিত এলাকায় এক যোগে পাঁচ থেকে সাত হাজার রকেট ছোড়া হয়।

একইসঙ্গে হামাসের যোদ্ধারা গাজার সীমান্তবর্তী ইসরাইলি চেকপোস্টগুলোতে অভিযান চালায় এবং বেশ কিছু চেকপোস্ট দখল করে নেয়। এ সময় বেশ কিছু ইসরাইলি সেনা নিহত হন এবং অনেকে হামাস যোদ্ধাদের হাতে আটক হন।

চেকপোস্ট দখলের পর ইসরাইলের দক্ষিণাঞ্চলের একাধিক শহরে ঢুকে পড়েন হামাস যোদ্ধারা। ঝটিকা অভিযানে তারা মোটরসাইকেল, এসইউভি ও প্যারাগ্লাইডার ব্যবহার করেন।

হামাসের সবচেয়ে চৌকস ইউনিট আল-কাসেম ব্রিগেড সামাজিক যোগাযোগামাধ্যমে অভিযানের ভিডিও প্রকাশ করেছে। এতে তারা দাবি করেছে, জীবিত অবস্থায় বেশ কিছু ইসরাইলি সেনাকে গাজায় ধরে এনেছেন তারা। এছাড়া ইসরাইলের অন্তত একটি মারকাভা ট্যাংক ধ্বংসের দাবি করেছে সংগঠনটি।

এদিকে ইসরাইল যুদ্ধের মধ্যে রয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। শনিবার ইসরাইলিদের উদ্দেশে এক ভাষণে তিনি বলেন, ইসরাইলের জনগণ, আমরা যুদ্ধের মধ্যে রয়েছি। আমরা জিতব।

তিনি বলেন, আজ শনিবার সকালে ইসরাইল ও ইসরাইলিদের বিরুদ্ধে মারাত্মক ও আকস্মিক হামলা চালিয়েছে হামাস। আমরা সকাল থেকে এ ধরনের পরিস্থিতিতে আছি। আমি নিরাপত্তা ব্যবস্থার সব প্রধানের সঙ্গে বৈঠক করেছি। প্রথমত যারা ইসরাইলে অনুপ্রবেশ করেছে তাদের নির্মূলের নির্দেশ দিয়েছি, এ অপারেশন এ মুহূর্তে চলছে।