• ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

কৃষ্ণসাগরে রাশিয়ার হামলার বিষয়ে সতর্ক করল যুক্তরাজ্য

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত অক্টোবর ৬, ২০২৩
কৃষ্ণসাগরে রাশিয়ার হামলার বিষয়ে সতর্ক করল যুক্তরাজ্য

বিবিএন ডেস্ক:যুক্তরাজ্য সরকার সতর্ক করে বলেছে, ইউক্রেনের বিভিন্ন বন্দরের কাছে সামুদ্রিক মাইন পুঁতে রেখে কৃষ্ণসাগরে চলাচল করা বেসামরিক জাহাজ লক্ষ্য করে এসবের বিস্ফোরণ ঘটিয়ে কিয়েভের ঘাড়ে দোষ চাপাতে পারে।

বুধবার এই সতর্ক করা হয়। খবর এএফপি’র।

ডিক্লাসিফাইড ইন্টেলিজেন্সের উদ্ধৃতির দিয়ে তারা জানায়, ইউক্রেনের শস্য রপ্তানি বাধাগ্রস্ত করতে তাদের ‘মানবিক করিডোর’ দিয়ে চলাচল করা পণ্যবাহী জাহাজ হামলার ঝুঁকিতে রয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেমস ক্লিভারলি বলেন, ‘কৃষ্ণ সাগরে চলাচল করা বেসামরিক জাহাজে হামলা চালিয়ে ক্ষতিসাধনে রাশিয়ার লক্ষ্য বেসামরিক জীবন এবং বিশ্বের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ মানুষের চাহিদার প্রতি পুতিনের অবহেলা প্রদর্শনের শামিল।’

তিনি বলেন, ‘সারাবিশ্ব এবং আমরা দেখছি, এই ধরনের হামলার ক্ষেত্রে রাশিয়া ইউক্রেনের উপর দোষ চাপানোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।’

গোয়েন্দা প্রতিবেদনের সারসংক্ষেপ প্রকাশ করে ক্লিভারলির দপ্তর বলেছেন, ‘যুক্তরাজ্য রাশিয়ার এই কৌশল ও প্রচেষ্টাকে বাধা দিতে চায়।’

লন্ডন গত মাসে বলেছিল, রুশ বাহিনী এই অঞ্চলের বিভিন্ন বেসামরিক কার্গো জাহাজ লক্ষ্য করে ‘একাধিক ক্ষেপণাস্ত্র’ হামলা চালায়। তবে ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা বাহিনী সফলভাবে সব হামলা ঠেকিয়ে দেয়।

রাশিয়া গত জুলাই মাসে কৃষ্ণ সাগর শস্য সরবরাহ চুক্তি থেকে বেরিয়ে গিয়ে ওই অঞ্চলে তাদের সামরিক তৎপরতা জোরদার করে।

যুক্তরাজ্য বলেছে, এই অঞ্চলে রুশ হামলায় বিভিন্ন বন্দরের ১৩০টি স্থাপনা ক্ষতিগ্রস্ত এবং প্রায় ৩ লক্ষ্য টন শস্য ধ্বংস হয়েছে যা এক বছরের জন্য ১০ লাখেরও বেশি লোককে খাওয়ানোর জন্য যথেষ্ট ছিল।

এদিকে, বুধবার ঋষি সুনাক ইউক্রেন ও দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির পক্ষে যুক্তরাজ্যের সমর্থনের বিষয়টি ফের নিশ্চিত করে পশ্চিমা মিত্রদের অস্ত্র সরবরাহ বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন।