• ১৬ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

ছাতকে সুরমা নদীতে নিখোঁজ যুবকের লাশ দোয়ারার ভোজনা এলাকায় নদী থেকে উদ্ধার

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত এপ্রিল ২২, ২০২২
ছাতকে সুরমা নদীতে নিখোঁজ যুবকের লাশ দোয়ারার ভোজনা এলাকায় নদী থেকে উদ্ধার

 

ছাতক প্রতিনিধি: ছাতকে নিখোঁজের চার দিন পর সুরমা নদী থেকে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) রাতে একই গ্রামের জাবির মিয়ার সাথে সুরমা নদীতে মাছ ধরার কথা বলে নদীতে যায়, মতিউর রহমান (২৬)। সে নোয়ারাই ইউনিয়নের লক্ষীবাউর গ্রামের আফতাব মিয়ার পুত্র। একসাথে নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে ওই রাতে জাবির মিয়া বাড়ি ফিরে এলে ও মতিউর রহমান আর বাড়ি ফিরেনি। তখন থেকেই মতিউর রহমান নিখোঁজ রয়েছে। পরিবার সুত্র থেকে জানা গেছে গ্রামের আব্দুর রহিমের পুত্র জাবির মিয়া ওই রাতে সুরমা নদীতে মাছ ধরার কথা বলে মতিউর রহমানকে ডেকে নিয়েছিলো। নিখোঁজের ঘটনায় ছাতক থানায় একটি জিডি ও করেছেন মতিউরের পিতা আফতাব মিয়া। শুক্রবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে মতিউর রহমানের লাশ উদ্ধার করেছে দোয়ারাবাজার থানা পুলিশ। সুরমা নদীর ভোজনা এলাকায় একটি ড্রেজিং জাহাজের পাইপের সাথে ভাসমান লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দেন। দোয়ারাবাজার থানার এস আই দিলু দে লাশ উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করেছেন।মতিউর রহমান নিখোঁজের পর থেকে জাবির মিয়ার কথা -বার্তায় বেশ ফারাক রয়েছে। একেক সময় একেক ধরনের কথা বলে যাচ্ছে। একই সাথে থাকা মতিউর রহমানের কোনো সন্ধান দিতে পারছিলোনা জাবির মিয়া। এ নিয়ে জনমনে নানা সন্দেহের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয়দের ধারণা পুর্ব শত্রুতার জেরে জাবির মিয়া মাছ ধরার কথা বলে মতিউর রহমানকে নদীতে নিয়ে পরিকল্পিত ভাবে খুন করেছে। ওই রাতে প্রচন্ড ঝড়ের সময় সুরমা নদীর বাউশা এলাকায় থাকা নদী খননের একটি জাহাজে (এক্যুয়া-সার-৩,এম১৩৮৩৭ সার্ক-৩) নিয়ে তাকে খুন করে নদীতে ফেলে দেয়া হয়েছিলো বলে তাদের ধারণা। মতিউর রহমান নিখোঁজের ঘটনায় বৃহস্পতিবার ছাতক থানার এস আই আতিকুল ইসলাম খন্দকার নিজ বাড়ি থেকে আটক করেন জাবির মিয়াকে। তার একটি মোবাইল ফোনের সুত্র ধরে আরো ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। এ তিন জন সুরমা নদীর বাউশা এলাকায় থাকা নদী খনন কাজের জাহাজ এক্যুয়া -৩ এর শ্রমিক। ছাতক থানার এস আই আতিকুল ইসলাম খন্দকার জানান, চার জনকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করা হয়েছে। দোয়ারা বাজার থানার এস আই দিলু দে জানান, লাশের দুটো চোখ সহ কয়েকটি স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। দোয়ারাবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ দেব দুলাল ধর লাশ উদ্ধারের বিষয় নিশ্চিত করে জানান, ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •