• ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৫ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

ফুড ব্যাংকিং টিমের উ‌দ্দ্যো‌গে ছাত‌কে গরিবের গরিবী ১০ টাকার ইফতার চালু

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত এপ্রিল ১১, ২০২২
ফুড ব্যাংকিং টিমের উ‌দ্দ্যো‌গে ছাত‌কে গরিবের গরিবী ১০ টাকার ইফতার চালু

 

ছাতক(সুনামগঞ্জ) প্রতি‌নি‌ধি,ছাত‌কে বেকার যুবক‌দের উ‌দ্দ্যো‌গে হতদ‌রিদ্র,ভিক্ষুক,ছিন্নমূলসহ শ`শ` মানুষকে একশত টাকার মু‌ল্যে ১০ টাকার গরী‌বের গ‌রিবী ইফতার প‌্যা‌কেট বি‌ত্রিু চালু ক‌রেন ফুড ব্যাংকিং টিম।
১০টাকার ইফতা‌রের ম‌ধ্যে র‌য়ে‌ছে পলিথিনের প্যাকেটে ছোলা, মুড়ি, একটি করে বেগুনি, জিলাপি পেঁয়াজু, বেগুনি, আলুর চপ খেজুর খিচুরীসহ আধা লিটার পা‌নির বোতলসহ। সব মিলিয়ে দাম ১০ টাকা।
১০ রক‌মের বাহা‌রি ইফতার প‌্যা‌কেট হতদ‌রিদ্র মানুষ গু‌লো এই ইফতারি অনেকেই কিনছেন। অনেকের এটারও সামর্থ্য নেই গরী‌বের।

সি‌লেট সুনামগঞ্জ সড়‌কের নানা শ্রেনীর মানুষ ম‌ধ্যে ফুড ব্যাংকিং টিম তা‌দের কাছ বি‌ত্রিু কর‌ছেন। প‌্যা‌কেটের স‌ঙ্গে র‌য়ে‌ছে আধা লিটার পা‌নির বোতলসহ ইফতারি কিনেই সন্তুষ্ট হতদ‌রিদ্র মানুষ।

গত বোববার থে‌কে বিকা‌লে ছাতক উপ‌জেলার গো‌বিন্দগঞ্জ ট্রা‌ফিক প‌য়েন্ট এলাকার ফুড ব্যাংকিং টিমের উ‌দ্দ্যো‌গে এ আ‌য়োজন চালু ক‌রেন হতদরিদ্র জনগোষ্ঠীর ম‌ধ্যে। গরী‌বের গরীবী ইফতার নামে প‌্যা‌কেট বি‌ত্রিু হ‌চ্ছে।

রমজানের উপল‌ক্ষে গত রোববার বিকা‌লে ৫টা থে‌কে ইফতা‌রে আগ পযন্ত গো‌বিন্দগঞ্জ ট্রা‌ফিক প‌য়েন্ট ফুড ব্যাংকিং টিম না‌মে এক‌টি বেসরকা‌রি সংস্থা এ ব‌্যতিত্রু‌মী আ‌য়োজ‌নের উ‌দ্দ্যোগে নেন।
এব‌্যাপা‌রে রাস্তা অন্ধ ভিক্ষু আব্দুস সামাদ (৪০) হতদ‌রিদ্র র‌হিমা বেগম(৪০) বলেন, ‘আইজ ১০ ট্যাহার দি‌য়ে বড় এক প‌্যা‌কেট ও আধা লিটার পা‌নিসহ ইফতার কিনছি। এটা প্রতি‌দিন চালু রাখার দা‌বি ক‌রেন তারা।
ছাত‌কে গো‌বিন্দগঞ্জ এলাকায় শত শত হত দ‌রিদ্রদের কাছে মাত্র ১০টাকায় ইফতার বি‌ত্রিুর ঘটনায় বেরাজপুর সরকা‌রি প্রাথ‌মিক বিদ‌্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মা‌নিক মিয়া,নুরুল হক ও শিক্ষক রেজ্জাদ আহমদসহ নানা শ্রেনীর মানুষ ফুড ব্যাংকিং টিমকে স্বাগতম জানা‌চ্ছেন।

এরই ঠিক উল্টোচিত্র দেখা যায়, ফুড ব্যাংকিং টিমের ব‌্যতিত্রুমী উ‌দ্দ্যোগের ঘটনায় সামা‌জিক যোগা‌যো‌গ ফেইস বু‌কে মাধ‌্যমে ব‌্যাপক ভাইরাস হ‌য়ে‌ছে। ১০টাকার গরী‌বের গরীবী ইফতার নি‌য়ে দেশ বি‌দে‌শে সমা‌লোচনার ঝড় বই‌ছে।

এ দি‌কে গো‌বিন্দগঞ্জ ট্রা‌ফিক প‌য়েন্ট এলাকায় আল্লাহ চত্তরের পাশে বাসা বেধেছে একদল বেদে পরিবার। প্রায় ২০ থেকে ২৫টি পরিবার এখানে বসবাস করছে। কথা হয় স্বামী পরিত্যক্ত রু‌বি (৪০) সঙ্গে। ক্ষোভের সঙ্গেই বলেন, ‘পেটে ভাত নাই, পরনে ছেঁড়া কাপড়, আবার ছেলেটা অসুখ, গরিবের আবার রোজা কী? আমরা তো সারা বছরই রোজা থাকি।

টোকাই, ছিন্নমূলসহ শ`শ` মানুষ ইফতারি না কিনতে পেরে প্রতিদিন মাগরিবের আজানের আগে আগে মসজিদ, দোকান ও মানুষের বাসার দরজায় ভিড় জমান। সারাদিন রোজা শেষে ইফতারির জন্য এ গো‌বিন্দগঞ্জ এলাকায় অসংখ্য মানুষ এক গ্লাস বিশুদ্ধপানি জোগাড়ের জন্যেও সংগ্রামে নামেন।
প্রধান সমন্বয়ক তরুন তোফায়েল আহমেদ,রবিউল,আবির,ছাব্বির,তৈয়বুর,রুবেল,রায়হান,কাওছার, আলী,আল আমিনসহ সদস্য ফুড ব্যাংকিং টিমের ১০ যু্বক এ মহ‌তি উ‌দ্দ্যোগের কাযত্রুম চালু করেন গো‌বিন্দগঞ্জ এলাকায় । #