• ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১০ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

হাওরে স্থায়ী প্রকল্প হবে,অনিয়ম দুর্নীতিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা:সুনামগঞ্জে পানি সম্পদ উপ-মন্ত্রী

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত এপ্রিল ৭, ২০২২
হাওরে স্থায়ী প্রকল্প হবে,অনিয়ম দুর্নীতিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা:সুনামগঞ্জে পানি সম্পদ উপ-মন্ত্রী

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:সুনামগঞ্জে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপ-মন্ত্রী এ.কে.এম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হাওরের মানুষদের জন্য খুব আন্তরিক। ২০১৭ সালের পর এবার কয়েকটি হাওরে ফসল রক্ষা বাঁধ ভেঙে বোরো ফসল তলিয়ে যায়। প্রতি বছর সরকার হাওরের জন্য কোটি টাকা ব্যয় করছেন। আমরা হাওরে জন্য স্থায়ী প্রকল্প গ্রহণ করেছি। স্থায়ী প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে হাওরের মানুষজন হাসি মুখে বোরো ফসল গোলায় তুলতে পারবে।  আমরা সে চেষ্টায় আছি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলার ধর্মপাশা উপজেলার চন্দ্র সোনার থাল হাওর পরিদর্শনে শেষে এসব কথা বলেন তিনি।

উপমন্ত্রী আরও বলেন, হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মাণ কাজে নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।  আমরা মন্ত্রণালয় থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে অনিয়ম দুর্নীতির সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।  হাওরের ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদেরকে আমরা তালিখা করছি। তাদেরকে প্রণোদনা দেয়ার। ইতিমধ্যে  জেলা প্রশাসন কৃষকদের তালিখা করার কাজ শুরু করেছেন।

এসময় সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য  মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য শামীমা শাহরিয়ার, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন  পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক বজলুর রশিদ  পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রধান প্রকোশলী এসএম শহিদুল ইসলাম তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী প্রবীর কুমার গোস্বামপ্র  নির্বাহীপ্রকৌশলী জহুরুলইসলাম  সামসুদদোহা   ধর্মপাশা উপজেলার চেয়ারম্যান  মোয়াজ্জেম হোসেন রুকন নির্বাহ অফিসার মুনতাসির হাসান জামালগঞ্জ উপজেলার চেয়ারম্যান ইকবাল আল আজাদ ধর্ম পাশা উপজেলার আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ বিলকিস প্রমুখ।