• ১৬ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

স্ত্রীর প্রেরণায় ইসলাম গ্রহণ কিংবদন্তি ফুটবলারের

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত মার্চ ৫, ২০২২
স্ত্রীর প্রেরণায় ইসলাম গ্রহণ কিংবদন্তি ফুটবলারের

 

বিবিএন স্পোর্টস ডেস্ক: ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন রিয়াল মাদ্রিদ ও এসি মিলানের সাবেক ডাচ সুপারস্টার ক্লারেন্স সিডর্ফ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে শুক্রবার মুসলিম হওয়ার ঘোষণা দেন তিনি। সিডর্ফ বলেছেন, ‘মুসলিম পরিবারে যোগদানের পর সবাই আমাকে অনেক সুন্দর সুন্দর বার্তা পাঠিয়েছেন। এজন্য সবাইকে জানাই ধন্যবাদ। আমি খুবই খুশি এবং বিশ্বের মুসলিম ভাই-বোনদের অংশ হতে পেরে কৃতজ্ঞ। বিশেষ করে আমার প্রিয়তমা স্ত্রী সোফিয়া (মাকরামাতি) প্রতি। সে আমাকে ইসলাম ধর্মের মর্মকথা শিখিয়েছে।’

তবে ইসলামে দীক্ষিত হলেও নিজের পুরনো নামই ব্যবহার করবেন সিডর্ফ। তিনি বলেন, ‘আমার বাবা মা যে নাম রেখেছেন আমি সেটি পাল্টাবো না।

‘ক্লারেন্স সিডর্ফ- এ নামেই আমাকে এখনও চিনবে সবাই।’

সিডর্ফের স্ত্রী সোফিয়া ইনস্টাগ্রামে বলেছেন, ‘আমি খুবই খুশি। আমার ভালোবাসা ক্লারেন্স সিডর্ফ মুসলিম পরিবারের অংশ হয়েছে- এই সুন্দর ও স্পেশাল মুহূর্তের অংশ হতে পেরে আমি গর্বিত।’

সুরিনামে জন্ম নেয়া সিডর্ফ ৯০’র দশকের অন্যতম সেরা মিডফিল্ডার। উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ জিতেছেন মোট চারবার। ফুটবল ইতিহাসে সিডর্ফ একমাত্র খেলোয়াড় যিনি ভিন্ন তিনটি ক্লাবের হয়ে জিতেছেন এই ট্রফি।
১৯৯৪-৯৫ মৌসুমে স্বদেশি ক্লাব আয়াক্সের হয়ে প্রথমবার চ্যাম্পিয়নস লীগ জয়ের স্বাদ নেন সিডর্ফ। রিয়ালে যোগদানের পর ১৯৯৭-৯৮ মৌসুমে পান দ্বিতীয় সাফল্য। আর ইতালিয়ান জায়ান্ট এসি মিলানের জার্সিতে চ্যাম্পিয়নস লীগ জেতেন ২০০৩ এবং ২০০৭ সালে। ক্লাব পর্যায়ে মোট ৮৮৯ ম্যাচে ১৩৫ গোল করেছেন তিনি। এর মধ্যে এসি মিলানের হয়ে ৪৩২ ম্যাচে করেন ৬২ গোল। ১৯৯৪ সালে নেদারল্যান্ডস দলে অভিষেকের পর ২০০৮ পর্যন্ত খেলেছেন সিডর্ফ। ৮৭ ম্যাচে ১১ গোল নিয়ে শেষ করেন আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার।

খেলোয়াড়ি জীবন শেষে কোচিং পেশায় যুক্ত হন তিনি। এসি মিলান, শেনজেন এবং দেপোর্তিভো লা করুনার কোচ ছিলেন। সবশেষ ২০১৯ সালে ক্যামেরুন জাতীয় দলের কোচের ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল সিডর্ফকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •