• ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১০ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

ছাতক সরকারী কলেজে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়ে জটিলতার অবসান

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২২
ছাতক সরকারী কলেজে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়ে জটিলতার অবসান

নিজস্ব প্রতিবেদক: সরকারী নির্দেশনায় সুনামগঞ্জের ছাতক সরকারী কলেজের (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যক্ষের দায়িত্ব নিয়ে জটিলতার অবসান হলো। গতকাল রোববার দুপুরে সরকারী মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) নির্দেশনায় কলেজের সহকারী অধ্যাপক তুলসী চরন দাস (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। দায়িত্ব গ্রহণের সময় থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান, কলেজের প্রভাষক এবং স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জ্যেষ্ঠতা লংঘন করে নতুন (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যক্ষ হিসেবে কলেজের সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান (হিসাব বিজ্ঞান) মো. বেলাল আহমদকে দায়িত্ব হস্তান্তর করায় জটিলতা দেখা দেয়। এমন অনিয়মে প্রভাষকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

জানা যায়, ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ছাতক ডিগ্রি কলেজ। কলেজটি ২০১৮ সালে সরকারিকরণ হয়। এ কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেন মঈন উদ্দিন আহমদ। তাঁর অবসর গ্রহণের পর ২০১৯ সালে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব গ্রহন করেন কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো. আবদুস সাত্তার। গত ১২ জানুয়ারি তিনিও চলে যান অবসরে। একইদিন জ্যেষ্ঠতা লংঘন করে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়োগ দেয়া হয় সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান (হিসাব বিজ্ঞান) মো. বেলাল আহমদকে। এনিয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)তে একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়।

কলেজ সুত্রে জানা যায়, গত বছরের ১৬ নভেম্বর কলেজের সহকারী অধ্যাপক তুলসী চরন দাস ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পদের জন্য আবেদন করেন। একই পদে সহকারী অধ্যাপক মো. বেলাল আহমদও করেছিলেন আবেদন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মামুনুর রহমান আবেদন দু’টি মাউশি সিলেট অঞ্চলে প্রেরণ করেন। চলতি বছরের ৯ জানুয়ারি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড সিলেট থেকে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে একটি পত্র দেয়া হয়। ওই পত্রে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালনে জ্যেষ্ঠতার বিষয়, তথ্য ও জনবলকাঠামো এবং এমপিও নীতিমালা ২০২১ এর ১৩ ধারা উল্লেখ করে বিধি অনুযায়ী পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া যেতে পারে বলে পত্রে উল্লেখ করা হয়।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মামুনুর রহমান বলেন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর সরকারী (কলেজ শাখা-২) এর এক আদেশে গত ১২ জানুয়ারী ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অবসর গ্রহন করায় সরকারী নীতিমালা আনুযায়ী এই কলেজে ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক তুলসী চরন দাসকে জ্যেষ্ঠ শিক্ষক হিসেবে নির্ধারণ করা হয়।