• ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৫ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

ছাতকে বিকল্প রাস্তা না করে কালভার্ড ভেঙ্গে জনদুর্ভোগ

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২২
ছাতকে বিকল্প রাস্তা না করে কালভার্ড ভেঙ্গে জনদুর্ভোগ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ছাতকে জালালপুর থেকে দোলারবাজার হয়ে লামা-রসুলগঞ্জ পর্যন্ত একটি রাস্তা। লামা-রসুলগঞ্জ শেষে সংযুক্ত হয়েছে জগন্নাথপুর উপজেলার সড়কের সাথে।

জানা যায়, সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের জালালপুর নামক ওই সড়কের প্রবেশ পথে রত্না নদীর উপর একটি কালভার্ড রয়েছে। ওই কালভার্ডটি ভেঙ্গে নতুন কালভার্ড নির্মানের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। প্রায় দুই সপ্তাহ আগ থেকে ভাঙ্গার কাজ শুরু হয়। এটির কাজ পেয়েছে মেসার্স আকবর আলী। কিন্তু যানচলাচলের বিকল্প কোন রাস্তা নির্মাণ না করে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কালভার্ড ভেঙ্গে মানুষের চলাচলে মারাত্মক ব্যাঘাতের সৃষ্টি করছে। বৃষ্টি নামা শুরু হলে রত্না নদী নামের ওই খাল পাড়ি দিয়ে মানুষ পায়ে হেটে চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হবে। অসুস্থ একজন রোগী নিয়ে ওই পথে চলাচল করা সম্পূর্ণ অসম্ভব। এতে ঘটতে পারে নানা-দুর্ঘটনা। বিকল্প রাস্তা না করায় ফুঁসে উঠেছে এলাকাবাসী। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষের এমন আচরণে তারা ক্ষুব্ধ। তাই তারা কালভার্ড ভাঙ্গা বন্ধ করে আগে মানুষ চলাচলের বিকল্প রাস্তা তৈরি করার জন্য সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন।

এব্যাপারে ছাতক উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) আবুল মনসুর মিয়া জানান, প্রায় ৬কোটি টাকা ব্যয়ে আরসিসিসহ ১০ কিলোমিটার সড়কের কাজ পায় মেসার্স আকবর আলী নামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। জালালপুরের কালভার্ড ভাঙ্গার আগে বিকল্প রাস্তা তৈরি করার কথা রয়েছে। যাতে মোটরসাইকেল, রিক্সাসহ ছোট যানবাহন পারাপার হতে পারে। তিনি আরও বলেন দুই মাসের মধ্যে এ কালভার্ডটির নির্মাণ কাজ শেষ করার কথাও রয়েছে।