• ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

ছাতকে এতিম শিশুকে নির্যাতনকারী সেই মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত নভেম্বর ১৭, ২০২১
ছাতকে এতিম শিশুকে নির্যাতনকারী সেই মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার

 

ছাতক প্রতিনিধি:ছাতকে মাদ্রাসা শিক্ষার্থী এতিম দু শিশুকে শারীরিক নির্যাতনকারী সেই মাদ্রাসা শিক্ষক আব্দুল মুকিত (৪০) কে গ্রেপ্তার করেছে ছাতক থানা পুলিশ।

বুধবার (১৭নভেম্বর) সকালে উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্ট থেকে সুনামগঞ্জের সহকারি পুলিশ সুপার (ছাতক-দোয়ারা) সার্কেল বিল্লাল হোসেন ও ছাতক থানার (ওসি) মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে একটি দল তাকে গ্রেপ্তার করে।

সম্প্রতি ছাতক উপজেলার কালারুকা ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের হাজী ইউসুফ আলী এতিমখানা হাফিজিয়া মাদ্রাসায় এতিম দু’শিশুকে বেধড়ক পেটানোর একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। ঘটনাটি ঘটিয়েছেন ওই প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক মাওলানা মো. আব্দুল মুকিত।

এ নিয়ে বিলাত বাংলা নিউজসহ দেশের বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরপর আব্দুল মুকিতের খুঁজে নামে পুলিশ।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, স্টিলের স্কেল দিয়ে ২ মিনিটে ৬ সেকেন্ডে ৩২টি আঘাত করেছেন ৮-১০ বছরের দুই শিশুকে। শিশু পিটুনি সহ্য না করতে পেরে ওই শিক্ষকের পা ধরেও রেহাই পায়নি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মাওলানা মো. আব্দুল মুকিত উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের রহমতপুর গ্রামের বাসিন্দা। কয়েক বছর আগে তিনি ওই মাদ্রাসায় নিয়োগ পান। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে চাকরি থেকে অব্যাহতি দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এলাকার অনেকের অভিযোগ, ওই শিক্ষককে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করেছে পরিচালনা পরিষদ।

ছাতক থানার (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা মিজানুর রহমান আব্দুল মুকিতকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, দুপুরে তাকে সুনামগঞ্জ জেলা হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে