• ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ৬ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সুনামগঞ্জ জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত জুলাই ১১, ২০২১
সুনামগঞ্জ জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

লতিফুর রহমান রাজু, সুনামগঞ্জ: সুনামগঞ্জ জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা ১১ জুলাই রবিবার দুপুর ১২টায় ভার্চুয়ালী অনুষ্ঠিত হয়েছে। সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেনের সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আল ইমরান রুহুল ইসলামের সঞ্চালনায় সংযুক্ত ছিলেন সুনামগঞ্জ ৫ আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, সুনামগঞ্জ সদর আসনের সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বিপিএম, সিভিল সার্জন ডাক্তার শামস উদ্দিন, সুনামগঞ্জ ২৮ বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল তছলিম এহসান পিএসসি, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত, জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আখতারুজ্জামান আক্তার,সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান খায়রুল হুদা চপল, জেল সুপার নওশের ভূইয়া, এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ মাহবুব আলম, সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি লতিফুর রহমান রাজু, সুনামগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রীর সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি আমিনুল হক উপজেলা নির্বাহী কর্ম কর্তা গণ সহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।
সভায় সিভিল সার্জন ডা.শামস উদ্দিন জানিয়েছেন কোভিড ১৯  পরিস্থিতি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। জেলায় এ পর্যন্ত ৩৩৩০জন আক্রান্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘন্টায় ৮৮জন আক্রান্ত হয়েছেন। মোট ৩৭জন মারা গেছেন।  ভর্তি আছেন ৩৩জন , হোম আইসোলেশনে আছেন ৩৮৪ জন। মোট সূস্হ হয়েছেন ২৮৭৫জন। এক প্রশ্নের জবাবে সিভিল সার্জন জানান সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে কোভিড ১৯  আক্রান্ত রোগীদের জন্য নির্মাণাধীন সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লানট ও আইসিউর কাজ চলমান রয়েছে বিদেশ থেকে একটি মেশিন আসলেই কাজ দ্রুত শেষ করা যাবে।
এছাড়াও সভায় বিভিন্ন বালু পাথর মহাল গুলোতে চাঁদাবাজি সহ অবৈধ বালু-পাথর উত্তোলনের ব্যাপারে প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ কে আরো কঠোর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন।  জেলা প্রশাসক জানান সরকারী লীজের বাইরে এবং নির্ধারিত সীমানার বাইরে কেউ যেন বালু-পাথর উত্তোলন না করতে পারে সেদিকে সংশ্লিষ্টদের নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।  জেলা প্রশাসক আরো বলেন বর্তমান কোভিড পরিস্থিতির কারণে সাধারণ মানুষের কষ্ট হচ্ছে আমরা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সরকার থেকে প্রাপ্য খাদ্য সহায়তা প্রদান করে যাচ্ছি এবং এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। তিনি আরও জানান যদি কেউ করোনাভাইরাস জনিত রোগ আক্রান্ত হন এবং তাদের সামর্থ্য না থাকে সরকার তাদের পাশে থাকবে।