• ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ৬ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর যাদুকাটা নদীতে দুই সহোদর নিখোঁজ

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত জুন ৩০, ২০২১
সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর যাদুকাটা নদীতে দুই সহোদর নিখোঁজ

 

তাহিরপুর প্রতিনিধি:সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে যাদুকাটা নদীতে পাহাড়ী ঢলের পানিতে ডুবে দুই সহোদর নিখোঁজ রয়েছে।

দুই সহোদরের নাম মেরাজুল ইসলাম (১০) ও খাইরুল ইসলাম (৭)।

নিখোঁজ দুই সহোদর উপজেলার দক্ষিণ বাদাঘাট ইউনিয়নের মিয়ারচড় গ্রামের মোস্তু মিয়ার ছেলে।

মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৫ টার দিকে মিয়ারচড় বাজার সংলগ্ন যাদুকাটা নদীতে এ নিখোঁজের ঘটনাটি ঘটেছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার বিকালে নিজ বাড়ি থেকে দুই সহোদর মিয়ারচড় বাজারের সংলগ্ন যাদুকাটা নদীতে পাহাড়ি ঢলের নতুন পানি দেখতে যায়। এসময় নদীর পাড়ে রাখা ষ্টিলের নৌকার উপর পানি দেখতে উঠে ছোট ভাই খাইরুল। বিষয়টি দেখতে পেয়ে বড় ভাই মেরাজুল বাজারে গিয়ে পিতা মোস্তু মিয়াকে জানায় খাইরুল নৌকায় উঠে পানি দেখছে। এসময় বাজারে তিনি ব্যবস্থ্য থাকায় খাইরুলকে নদীর পাড় থেকে বাড়ী নিয়ে আসার জন্য আবার পাঠায়। পরে মেরাজুল তার ছোট ভাই খাইরুলকে আনতে গিয়ে ফিরে আর আসেনি।

নিখোঁজদ্বয়ের পিতা মোস্তু মিয়া বলেন, নদীতে নতুন গোলার পানি এসে ভরে গেছে। বাজারের দোকানে ব্যবস্থ্য থাকায় বড় ছেলেকে বলেছিলাম ছোট ছেলেকে নদীর পাড় থেকে নিয়ে আসতে। তারা ফিরে আসতে দেরী দেখে কিছুক্ষন পর নদীর পাড়ে গিয়ে দেখী তারা নাই। মনে হয় আমার দুই ছেলেই পানিতে ডুবে গেছে।

পরে বিষয়টি বিশ্বম্ভরপুর থানায় জানালে বুধবার সকালে ঘটনাস্থলে এসে থানা পুলিশের সহযোগিতায় ডুবুরিদল যাদুকাটা নদীর মিয়ারচড়ে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দুই সহোদরের সন্ধান পায়নি উদ্ধার পরিচালনাকারী দল।

বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা সাদিউর রহিম জাদিদ বলেন, বিষয়টি জানার পর পরই সকালে থানা পুলিশ ও পায়ারসার্ভিসের একটি ডুবুরি দল নিয়ে ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছি। পরিবারের ভাষ্য মতে দুই শিশুই নদীতে ডুবে নিখোঁজ রয়েছে। দুই সহোদরকে উদ্ধার করতে পরিবারের লোকজনসহ পুলিশ ও ডুবুরি দল চেষ্টা করছে।