• ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৪ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

লন্ডন টাওয়ার হ্যামলেটসের ৬ ব্রিটিশ বাংলাদেশী মাদক সরবরাহকারীর জেল

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত জুন ৩০, ২০২১
লন্ডন টাওয়ার হ্যামলেটসের ৬ ব্রিটিশ বাংলাদেশী মাদক সরবরাহকারীর জেল

বিবিএন ডেস্ক: বাংলাদেশী অধ্যুষিত এলাকা টাওয়ার হ্য্যামলেটসের হোয়াইটচ্যাপেল এলাকায় মাদক সরবরাহকারী ৬ তরুনকে মোট ১৪ বছরের জেল দিয়েছে স্নেয়ারসব্রুক ক্রাউন কোর্ট। এরা সবাই ব্রিটিশ বাংলাদেশী। কোর্ট এদের সাজা ঘোষনা করতে গিয়ে বলেছে পূর্ব লণ্ডনের রাস্তায় এই তরুনরা মাদকের বন্যা বইয়ে দিচ্ছিলো!

কোর্টের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, ২৩ বছরের জুনেল আহমেদকে তিন বছর তিন মাসের জেল দেওয়া হয়েছে। জুনেল আহমেদ কোকেন ও হিরোইন সাপ্লাই দিতো টাওয়ার হ্যামলেটস এলাকায়।
১৮ বছরের আতিফুর রহমানকে দুই বছরের জেল দেওয়া হয়েছে। আতিফুর রহমানও কোকেন ও হিরোইন সাপ্লাই করতো।
রুহিল হোসেন নামের আর একজনকে দুই বছরের জেল দিয়েছে পুলিশ। রুহেলের বয়স ১৮ বছর। রুহেল ক্রাক, কোকেইনও সাপ্লাই করতো।
২৩ বছরের মাহমুদুর হোসেনকে কোর্ট তিন বছরের জেল এবং বার গুলোতে নিষিদ্ধ করেছে কোর্ট। মাহমুদুর হোসেনও কোকেন ও হিরোইনের সাথে ক্রাক কোকেন ও হিরোইনও সাপ্লাই করতো।
১৮ বছরের মোহাম্মাদ শেরওয়ানকেও  একই অপরাধে কোর্ট তাকে দুই বছরের জেল প্রদান করেছে।

পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দুই মাস আগে পুলিশ মাদক সরবরাহের কারনে ৫২ জনকে গ্রেফতার করেন। যার মধ্যে ৩৪ জন যুবক ও চার জন কিশোর তাদের অপরাধ স্বীকার  করে নিয়েছেন।
এদিকে গত বছরের একই অপরাধে চারজনকে জেল দেয় কোর্ট। এই চারজন হচ্ছে ১৮ বছরের মাসুম আলি, ৪৭ বছরের দিলশাদ চৌধুরি, ৩৬ বছরের কোনস্টানটিসোস , ২৩ বছরের মোহাম্মাদ মারুফ।

বিষয়টি নিয়ে ট্যাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র জন বিগস বলেন, এতো সংখ্যক মাদক সরবরাহকারীদের ধরা সত্যি একটি সফল কাজ। টাওয়ার হ্যামলেটের নাগরিকদের কাছে মাদক সরবরাহকারী ও অসামাজিক কার্যকালাপ এখন উদ্বিগ্নের বিষয়। তাই এই এলাকা সুরক্ষিত রাখতে কাজ করতে হবে।(রানার মিডিয়া)