• ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ৬ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সারা দেশের ন্যায় সুনামগঞ্জে ও প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভূমিহীন, গৃহহীনদের মাঝে গৃহ জমি হস্তান্তর

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত জুন ২০, ২০২১
সারা দেশের ন্যায় সুনামগঞ্জে ও প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভূমিহীন, গৃহহীনদের মাঝে গৃহ জমি হস্তান্তর
লতিফুর রহমান রাজু, সুনামগঞ্জ: বিশ্বম্ভরপুরে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ৪০টি ভূমিহীন, গৃহহীন পরিবারের মাঝে গৃহ জমি ও দলিলপত্রাদি আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হয়েছে। রোববার সকালে উপজেলা অডিটোরিয়ামে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদি উর রহিম জাদিদ এর সভাপতিত্বে, সহকারী কমিশনার (ভূমি)  মোঃ স্বজল মোল্লার সঞ্চালনায়, প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন। আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ সফর উদ্দিন, স্বাস্থ্য ও প,প কর্মকর্তা ডাক্তার আব্দুল্লাহেল -মারুফ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা তাজ্জাদ আলী খান, থানার অফিসার ইনচার্জ সুরঞ্জিত তালুকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ স¤পাদক নুরুল আলম সিদ্দিকী, ফতেপুর ইউপি চেয়ারম্যান রঞ্জিত চৌধুরী রাজন।  প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে জমি ও গৃহ আনুষ্ঠানিকভাবে প্রদান করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় বিশ্বম্ভরপুরে দ্বিতীয় পর্যায়ে উপজেলার ৪০টি গৃহহীন ও  ভূমিহীন পরিবারের মাঝে আনুষ্ঠানিকভাবে ভূমি ও ঘরের দলিল  পত্র ও অন্যান্য কাগজপত্রাদি হস্তান্তর করা হয়।
উক্ত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের  সরকারী কর্মকর্তাবৃন্দ,  জনপ্রতিনিধিবৃন্দ, স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, ও উপকারভোগীসহ  সর্বস্তরের লোকজন। এদিকে তাহিরপুর উপজেলায় মুজিববর্ষ উপলক্ষে ৭৬টি গৃহহীন পরিবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপহার ঘর ও ঘরের দলিল হস্তান্তর করা হয়। রবিবার ১১টায় ভার্চুয়াল মাধ্যমে সংযুক্ত হয়ে গৃহহীনদের মধ্যে ঘর প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উপজেলা বঙ্গবন্ধু কর্ণার থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রায়হান কবিরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হোসেন খান, সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুছ ছোবাহান আখঞ্জি, উপজেলা পরিষদ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খালেদা বেগম, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সৈয়দ আবু মো. শাফি,উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাসান-উদ-দৌলা, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি রমেন্দ্র নারায়ণ বৈশাখ, সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া, সাংবাদিক তানভীর আহমেদ, উপজেলা প্রকৌশলী ইকবাল হোসেন, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক স¤পাদক আলমগীর খোকন, সদর ইউপি চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি হাফিজ উদ্দিন, সোনালী ব্যাংক ব্যবস্থাপক আব্দুল গফুর প্রমুখ। সারা দেশের ন্যায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলাতেও ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার দ্বিতীয় পর্যায়ে এসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার মুজিববর্ষের ঘর পেলেন ১০ টি পরিবার। রবিবার সকাল ১১ টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারাদেশে একযোগে জমির দলিল প্রদান ও গৃহহীনদের ঘরের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পিআইও অফিস। গৃহহীনদের জন্য টিনশেড ঘরের মধ্যে দুটি কক্ষ সহ বারান্দা, একটি রান্নঘর, একটি বাথরুম ও ইউটিলিটি রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গীকার বাস্তবায়নে মুজিববর্ষে সব গৃহ ও ভূমিহীনদের দ্বিতীয় পর্যায়ের তালিকা থেকে ঘর পেলেন তারা। উপজেলার শান্তিগঞ্জস্থ এফআইভিডিবির হলরুমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে উপকারভোগীদের হাতে বাসগৃহের দলিল নবনির্মিত ঘরের চাবি তুলে দেন অতিথিবৃন্দ। পাকা ঘর পেয়ে গৃহহীনরা, বাঁধ ভাঙ্গা আনন্দে অনেকেই অশ্রু সিক্ত হয়ে পড়ে। সকলে সমস্বরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। গৃহ উদ্বোধন পরবর্তী আলোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার আনোয়ার উজ জামানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মাসুদ আহমদের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- সিলেট বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মো: জাকারিয়া। স্বাগত বক্তব্য রাখেন- উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসেন ভুইঁয়া।বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- পরিকল্পনামন্ত্রীর একান্ত রাজনৈতিক সচিব হাসনাত হোসেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক নূর হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান দুলন রানী তালুকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ স¤পাদক আতাউর রহমান, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম, থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী মোক্তাদির হোসেন, জয়কলস ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদ মিয়া প্রমুখ। এসময় বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা, সামাজিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও উপকারভোগীরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ভূমিসহ গৃহ নির্মানের অগ্রাধিকার প্রকল্প ১ম পর্যায়ে ২৫১টি, ২য় পর্যায়ে ১২টিসহ মোট ২৬৩টি পরিবারকে) বাসগৃহ নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে কিছু ঘরের কাজ বাকি রয়েছে যা জুন মাসের মধ্যেই শেষ হবে। দোয়ারাবাজারে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম ২য় ধাপ শুরু হয়েছে। রবিবার সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ২য় পর্যায়ে ২০ টি ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারের মাঝে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে জমি ও ঘর প্রদানের শুভ উদ্বোধন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় উপস্থিত প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও সুধীজন এসব পরিবারকে পাকা ঘরের মালিকানা ও দলিলপত্র বুঝিয়ে দেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আব্দুর রহিম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দেবাংশু কুমার সিংহ, ওসি দেবদুলাল ধর, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আম্বিয়া আহমেদ, সমাজসেবা কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পঞ্চানন কুমার সানা, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইদ্রিস আলী বীরপ্রতীক, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিম বীরপ্রতীক, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদ বীরপ্রতীক, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল খালেক, উপজেলা পরিষদের সিএ সফিক রহমান, বিভিন্ন দপ্তরের প্রশাসনিক কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও গণমাধ্যমকর্মীরা। উল্লেখ্য, প্রথম ধাপে এ উপজেলায় ২৬০টি গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান করা হয়েছে। দ্বিতীয় ধাপে ২০টি পরিবার জমি ও গৃহ পাচ্ছেন। দ্বিতীয় ধাপের ৫টি ঘর আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হয়েছে। বাকি ১৫টি হস্তান্তরের প্রক্রিয়াধীন। আশ্রয়ণের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার এই প্রতিপাদ্য নিয়ে মজিব শতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ৫৩ হাজার, ৩ শত ৪০ টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান (২য় পর্যায়) আশ্রয়ণ -২ প্রকল্পের শুভ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রবিবার সাড়ে ১১টায় গণভবণ থেকে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ উপলক্ষে জামালগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদ হল রুমে সকাল ১০ ঘটিকায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিশ্বজিৎ দেবের সভাপতিত্বে ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মাহবুবুল কবিরের সঞ্চালনায় আলেচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইকবাল আল আজাদ। সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম জিলানী আফিন্দী রাজু, উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল সাত্তার, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মো. এরশাদ হোসেন, আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মাদ আলী, সাধারণ সম্পাদক এম নবী হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু তালুকদার, মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম, উপকার ভোগী দেবল তালুকদার ও চায়না প্রমুখ।  প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে প্রশাসনের মাধ্যমে চাবি হস্তান্তর করা হয় উপকার ভোগী সকলের মাঝে।