• ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৪ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

জামালগঞ্জে জোড়া খুনের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন পুলিশ সুপার

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত মে ১০, ২০২১
জামালগঞ্জে জোড়া খুনের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন পুলিশ সুপার
লতিফুর রহমান রাজু, সুনামগঞ্জ:একই পরিবারের দুই শিশুর ঝগড়াকে কেন্দ্র করে জামালগঞ্জ উপজেলার বেহেলী ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের ভাই ভাবী খুনের ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বিপিএম।
১০ মে সকালে সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বিপিএম, জামালগঞ্জ সার্কেল এএসপি বাবুল আখতার, জামালগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্ম কর্তা সাইফুল আলম ঘটনাস্থল আলীপুর পরির্দশন করেছেন। এর আগে রাতেই ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাহেব আলী পাঠান। পুলিশ সুপার ঘটনাস্থল পরির্দশন করে নিহতের ছেলে মেয়ে সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সাথে কথা বলেন। পরে এলাকার লোকজনের সাথেও কথা বলেছেন।  পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বিপিএম বলেছেন এ ঘটনার সুষ্ট তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীদের শনাক্ত করে আইনী ব্যাবস্থা নেয়া হবে।  অযথা নিরপরাধ কোন ব্যক্তিকে হয়রানী করা হবেনা। আসামী পলাতক আছে, পুলিশ তাকে আটক করার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে। আশা করি শীঘ্রই ধরা পড়বে।
প্রসঙ্গ: গত ৯ মে বাদ মাগরিব ও জামালগঞ্জ উপজেলার বেহেলী ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের আলমগীর ও তার সহোদর রাসেল মিয়ার দুই শিশু পুত্রের মধ্যে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে দুই শিশুর মায়েরাও ঝগড়ায় লিপ্ত হলে এলাকার লোকজন তাদের সরিয়ে দেন। বাদ এশা এ নিয়ে দুই সহোদর আলমগীর ও রাসেল মিয়া ও পুনরায় ঝগড়ায় জড়িত হন। এক পর্যায়ে রাসেল মিয়া ধারালো ছুরিকাঘাত   করেন আলমগীর কে তখন আলমগীরের স্ত্রী মুর্শেদা বেগম এগিয়ে আসলে রাসেল তাকেও ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। সাথে সাথে জামালগঞ্জ হাসপাতালে তাদের নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় ৬  জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। এর মধ্যে রাসেলের স্ত্রী বিপ্লমা বেগম কে পুলিশ আটক করেছে। বাকীদের ও আটকের চেষ্টা চলছে