• ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১২ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

সিলেটের গোলাপগঞ্জে মন্দিরে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা,পুরোহিত গ্রেপ্তার

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত এপ্রিল ১৫, ২০২১
সিলেটের গোলাপগঞ্জে মন্দিরে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা,পুরোহিত গ্রেপ্তার

সিলেট প্রতিনিধি:সিলেটের গোলাপগঞ্জের বাঘায় মন্দিরে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে এক বৈষ্ণব (পুরোহিত) কে গ্রেপ্তার করেছে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ। বুধবার রাতে উপজেেলার বাঘা কালাকোনা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত প্রাণগোবিন্দ দাস ওরফে ফরেস্ট চৌহান (৪৬) টাংগাইল জেলার দেলদোহার থানার সিলিমপুর গ্রামের কালু চৌহানের ছেলে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোলাপগঞ্জ উপজেলার বাঘা ইউনিয়নের কালাকোনা গ্রামে শ্রী শ্রী গিরিধারী জিউ মন্দিরের বৈষ্ণব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন প্রাণগোবিন্দ দাস। ধর্মীয় শিক্ষা লাভের জন্য তার কাছে প্রায়ই যাওয়া আসা করতেন এলাকার তরুণ-তরুণী সহ বিভিন্ন বয়সের হিন্দু ধর্মের অনুসারীরা।

স্খানীয়রা জানান, মন্দিরের পাশ্ববর্তী বাড়ির এক তরুণী গত ১৩ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭ টায় ধর্মীয় শিক্ষা লাভের জন্য প্রাণগোবিন্দ দাসের কাছে যান। এসময় ওই তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা চালান প্রাণগোবিন্দ।

স্থানীয়দের অভিযোগ, পুরোহিত ও তার অপর সহযোগি কালাকোনা গ্রামের দিপংকর দেব তপন (৩৮) তরুণীকে জরুরী কাজের কথা বলে মন্দিরের পাশে নিয়ে যান। সেখানে তারা মেয়েটির মুখে চেপে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করলে তরুণী চিৎকার শুরু করেন। এ সময় আশপাশ এলাকার লোকজন ও তরুণীর আত্মীয়-স্বজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করেন।

পরে প্রাণগোবিন্দ দাসকে এলাকাবাসী আটক করে গণধোলাই দেন। এ সময় তার সহযোগি দিপংকর দেব তপন পালিয়ে যান।

এদিকে, এ ঘটনায় ওই তরুণী বাদী হয়ে প্রাণগোবিন্দ দাস ও দিপংকর দেব তপনকে অভিযুক্ত করে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা (মামলা নং-১২/ ১৪-০৪-২০২১ইং) দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ হারুনূর রশীদ চৌধুরী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, অন্যজনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

এদিকে একজন পুরোহিত কর্তৃক ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় বাঘায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।