• ২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ৪ঠা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

হাটহাজারীতে তাণ্ডব:৬ মামলায় ২,৫০০ আসামির মধ্যে নেই হেফাজতের কেউ

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত মার্চ ৩১, ২০২১
হাটহাজারীতে তাণ্ডব:৬ মামলায় ২,৫০০ আসামির মধ্যে নেই হেফাজতের কেউ

বিবিএন নিউজ ডেস্ক:চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে হেফাজতের তাণ্ডবের পাঁচদিন পর হাটহাজারী থানায় পৃথক ৬ টি মামলা দায়ের হয়েছে। এসব মামলায় নাম উল্লেখ ছাড়া ২ হজার ৫০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে এসব মামলা করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন হাটহাজারী সার্কেলের এএসপি মসিউদৌলা রেজা।

থানা পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয় ও সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসে গত ২৬ মার্চ হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীদের তাণ্ডবের ঘটনায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসের নাজির একরামুল হক শিকদার এবং সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আক্তার কামাল চৌধুরী বাদি হয়ে দুটি ও হাটহাজারী থানায় হামলা, পুলিশের কাজে বাঁধা, পুলিশ সদস্যদের মারধর অগ্নিসংযোগের অভিযোগে পুলিশ বাদি হয়ে পৃথক চারটি মামলা দায়ের করেছে।

মামলা ৬ টিতে ২ হাজার ৫০০ জন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে। তবে মামলার এজাহারে তাণ্ডবে ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ দিলেও টাকার অংকে তা উল্লেখ করা হয়নি।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমনের বিরোধিতাকে কেন্দ্র করে হেফাজতকর্মীদের তাণ্ডবে সদর ভূমি অফিস ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়। আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয় এসি ল্যান্ড অফিসও।

তাণ্ডব চালিয়ে হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা উপজেলা সদর, ফতেপুর ও মেখল ইউনিয়নের ১৭টি মৌজার নামজারি খতিয়ান, খাজনা ও খতিয়ান বইসহ গুরুত্বপূর্ণ সরকারি দলিল-দস্তাবেজ তছনছ করে।

এসি-ল্যান্ড শরীফ উল্যাহ’র সরকারি গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়। এসি-ল্যান্ড অফিসের বাইরে লাগানো ৬টি সিসিটিভি ক্যামেরাও ভাংচুর করে তারা। সেদিন মূল ফটক বন্ধ থাকায় সীমানা দেয়াল টপকে সদর ভূমি ও এসি ল্যান্ড অফিসে ঢুকে তারা।