• ৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ৫ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

ছাতক সরকারি গোপাট দখল করে ৩২ পরিবার অবরুদ্ধ: দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত মার্চ ২২, ২০২১
ছাতক সরকারি গোপাট দখল করে ৩২ পরিবার অবরুদ্ধ: দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০

ছাতক(সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি :ছাতকে সরকারি গোপাট দখল করে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে ৩২টি পরিবার অবরুদ্ধ করায় এ ঘটনায় গ্রামবাসি দু’পক্ষের মধ্যে মুখামুখি সংঘষে উভয়ের মধ্যে ২০জন আহত হয়েছে। গত রোবরার সন্ধ্যায় উপজেলার ছৈলা আফজলাবাদ ইউনিয়নের রাধানগর গ্রামে সাবেক চেয়ারম্যান শামছুদ্দীন কাচা মিয়া ও কৃষক আতিকুর রহমানের লোকজনের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, উপজেলার রাধানগর গ্রামে ১ নম্বার খতিয়ানে ১৯৬৮ দাগে গোপাট ভুমি ক্ষমতার প্রভাব দেখিয়ে গোপাট ভুমি অবৈধভাবে রাস্তা চলাচলে উপর পাকা দেয়াল নিমার্ন করে ৩২টি পরিবার কে অবরুদ্ধ রাখা হয়েছে।এ ঘটনায় কৃষক আতিকুর রহমানসহ গ্রামবাসি সাবেক ইউপির চেয়ারম্যান শামছুদ্দীন কাচা মিয়ার বিরুদ্ধে সরকারি খাস রাস্তাটি বন্ধ করে পাকা দেয়াল নিমানের অভিযোগ দায়ের করেন উপজেলার নিবাহর্ী কমকতা ও এসিল্যান্ড বরাবরে। পরে মাঠে সার্ভেয়ার গিয়ে ০১৫০ একর গোপাট ভুমি তার বাসার দেয়ালে অবৈধ দখলীত ভুমি পুনরুদ্ধার অধ্যাদেশ ১৯৭০ এর আলোকে অবৈধ দখলদারকে উচ্ছেদ ত্রুমে সরকারি ভুমি দেয়াল ধবংস করে সরিয়ে দেয়ার সুপারি করেন সার্ভেয়ার।গত ১৬ ফেরুয়ারি ২৬৬ স্বারকে সরকারি গোপাট ভুমিতে অবৈধভাবে নির্মিত দেয়াল বিশেষ অংশ (৭) দিনের মধ্যে অপসারনের নোটিশ প্রদান করেন সুনামগঞ্জ জেলা রাজস্ব শাখা।সাবেক চেয়ারম্যান শামছুদ্দীন কাচা মিয়া তার অবৈধ স্থাপনা না ভেঙ্গে সার্ভেয়ার তদন্তের রিপোটের উপর নারাজি দিয়ে পুন তদন্ত করে সার্ভেয়ার নিয়োগ করেন সুনামগঞ্জ জেলা রাজস্ব বিভাগ। গত রোববার সুনামগঞ্জ জেলা থেকে সার্ভেয়ার শাহিন আহমদের নেতৃত্বে একদল টিম রাধানগর গ্রামে আসে। দু’পক্ষের উপস্থিত স্বাক্ষর নিয়ে সাভেয়ারের কাজ শুরু করে শেষ করার আগেই সাবেক ইউপির চেয়ারম্যান শামছুদ্দীন কাচা মিয়ার পুত্র লিটনের নেতৃত্বে গ্রামবাসীদের উপর দেশী অস্ত্র ও বন্দুক নিয়ে অতকিত হামলা চালায়। এ হামলায় দু’পক্ষে অন্তত ২০জন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন,সিহাব(২০) সাকিল(২০) রুয়েল (২৫)গিয়াস উদ্দিন(৫০) জসিম উদ্দিন (৪৫)মইনুল ইসলাম (৩০) সুমন (৩৫) রিপন (৪০)। এদেরতে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এঘটনায় গ্রামবাসি ৯৯৯ নম্বার একাধিক অভিযোগ করেন বলে গ্রামবাসী জানান।
ভুক্তভোগী পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, পুরো রাস্তাটির দৈঘর্য ছিল ৬শ’ ফুট ও প্রস্থ ১৮ ফুট। দেশ স্বাধীনতার পর থেকে ওই সব পরিবার রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করে আসছে। হঠাৎ গত বছরের ১৩ সে্েপ্টম্বর সাবেক চেয়ারম্যান কাচা মিয়ার নেতৃত্বে সরকারি খাস ভুমি উপর রাস্তাটিতে একটি পাকা দেয়াল নির্মাণ করে। এসব পরিবারগুলো বাধা দিতে গেলে তিনি পাকা রাস্তার ৩শ’ফুট মধ্যে ইট বালু সিমেন্ট দিয়ে পাকা বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেয়। কৃষক ও শ্রমজীবি কোনো রাস্তা না থাকায় ৩২টি পরিবারের সদস্যরা চরম বেকায়দায় পড়েছেন।
এব্যাপারে সাভেয়ার শাহিন আমহদ জানান,দীর্ঘদিনের বিরোধ নিম্পতির লক্ষে মাঠে কাজ করতে গিয়ে সাবেক ইউপির চেয়ারম্যান শামছুদ্দীন কাচা মিয়ার নিমিত পাকা অবৈধভাবে দেয়াল উপর মাপ দিতে গিয়ে তার ৩ পুত্র নেতৃত্বে গ্রামবাসির উপর দেশী অস্ত্র নিয়ে অতকিত হামলা চালায়। এ হামলা প্রতিরোধ করতে গিয়ে গ্রামবাসিদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে আমার নিরাপত্তার ভয়ে সেখান থেকে কাগজ পত্র নিয়ে চলে আসি।
এব্যাপারে সাবেক চেয়ারম্যান শামছুদ্দীন কাচা মিয়া সঙ্গে একাধিক বার তার মোবাইলে যোগাযোগ করলে ও মোবাইলের রিং হচ্ছে। কিন্ত কেউ মোবাইল ফোনটি রিসিভ না করায় তার বক্তব্য পাওয়া গেল না । এ ঘটনায় ব্যাপারে কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। গ্রামবাসি মামলা দায়ের প্রস্ততি নিচ্ছে বলে জানা গেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •