• ২১শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ২০শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সিলেট যুক্তরাজ্য ফেরত প্রবাসীরা ক্ষুব্ধ: সিভিল সার্জনের পদত্যাগ দাবী

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ২, ২০২১
সিলেট যুক্তরাজ্য ফেরত প্রবাসীরা ক্ষুব্ধ: সিভিল সার্জনের পদত্যাগ দাবী

বিবিএন নিউজ ডেস্ক: সিলেটের সিভিল সার্জন ডাঃ প্রেমানন্দ মন্ডলের পদত্যাগ দাবী করেছেন যুক্তরাজ্য ফেরত কোয়ারেন্টিনে থাকা ১৪২ জন প্রবাসী।

গত ২৫ জানুয়ারি লন্ডন থেকে ১৪২ জন যাত্রী বাংলাদেশ বিমান যোগে সিলেট আসেন। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী যাত্রীদেরকে ৭ দিনের কোয়ারেন্টিনের জন্য সিলেটের বিভিন্ন হোটেলে পাঠানো হয়। ৭ দিন পূর্ণ হওয়ার পরও সিলেট সিভিল সার্জন অফিস থেকে প্রবাসীদের করোনা পরীক্ষার করা হয়নি এবং এ ব্যাপারে তাদের সাথে যোগাযোগ করেনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। প্রবাসীরা সিভিল সার্জনের অফিসে ফোন করলে তাদের ফোন কেউ রিসিভ করেনি।

যুক্তরাজ্য প্রবাসী কমিউনিটি এক্টিভিস্ট, ফ্রেইন্ডস অফ সিলেটের আব্দুস সোবহান অনুপম নিউজ টুয়েন্টিফোরকে টেলিফোনে জানিয়েছে, কর্তৃপক্ষের নিজেদের ইচ্ছে মতো সরকারি নির্দেশের বাইরে আমাদেরকে অবহেলা করে মানসিক ভাবে নির্যাতন করতেছে। তিনি দুঃক্ষ প্রকাশ করে বলেন, আমরা প্রবাসীরা মাতৃভূমির টানে বারবার দেশে আসি এবং বিপুল পরিমান রেমিটেন্স পাঠিয়ে দেশের উন্নয়ানে অংশ নেই, কিন্তু রেমিটেন্স যোদ্ধাদের সাথে এইধরণের আচরণ অত্যান্ত দুঃখজনক।

প্রবাসীদের সাথে অবহেলার অভিযোগ এনে সিলেটের সিভিল সার্জন ডাঃ প্রেমানন্দ মন্ডলের পদত্যাগ দাবী করেছেন যুক্তরাজ্য ফেরত কোয়ারেন্টিনে থাকা যাত্রী । পদত্যাগ চেয়ে লিখিত আবেদন করেছেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী কমিউনিটি এক্টিভিস্ট, ফ্রেইন্ডস অফ সিলেটের আব্দুস ছোবহান, আশরাফ আহমেদ, রফিক আলী, মোঃ খলিলুর রহমান, মোঃ শামসু মিয়া, মোঃ কালা মিয়া, তাহমিদ আহমদ, মাসুক মিয়া, দেলোয়ার হোসেন খান, মোহাম্মদ দেলোয়ার উদ্দিন, আতিকুর রহমান, মুর্শেদ খান, আব্দুন নুর, ফলুল করিম, ইয়াকব আলী, সুজন, মিনারা সুলতানা, সাহাব উদ্দিন, আব্দুল নুর, নজরুল আলম, ইসমাঈল আলী, আব্দুল মুমিন, মাসুক আহমদ, জাহানারা বেগম, আরিজ খান, জামাল উদ্দিন, মোঃ শোয়েবুর রহমান প্রমুখ।

লিখিত আবেদনে কোয়ারেন্টিনে থাকা প্রবাসীরা বলেছেন,সরকারি নির্দেশনা ৭ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষে হোম কোরেরেন্টিন ১৪ দিন থাকলেও সিলেটের সিভিল সার্জন সরকারি নির্দেশনা না মেনে টালবাহানা করছেন বলে প্রবাসীরা অভিযোগ করেন। তারা বলেন, নির্ধারিত সময়ের পর আরো দু’তিন হোটেলে রেখে লাভবান হচ্ছে অসাধু মহল। এতে লন্ডন প্রবাসীরা মানসিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ও অসুস্থ হচ্ছেন। লন্ডন থেকে দেশে আসা প্রবাসীদের অবহেলা না করতে সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •