• ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ৫ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

ছাতকে প্রবাসী পরিবারের উদ্যোগে সড়ক নির্মাণে খুশি এলাকাবাসী

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত জানুয়ারি ২৫, ২০২১
ছাতকে প্রবাসী পরিবারের উদ্যোগে সড়ক নির্মাণে খুশি এলাকাবাসী

 

রেজাউল করিম রেজা, ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি:সুনামগঞ্জের ছাতকে অবহেলিত গ্রামীন জনগোষ্টির কাঁচা রাস্তা-ঘাট মেরামতসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের উদ্যোগ নিয়েছে প্রবাসী এক পরিবার। কষ্টে অর্জিত জমিয়ে রাখা তাদের অর্থ ঢেলে দিচ্ছেন মানুষের কল্যাণে। গ্রামীনজনগোষ্টির চলাচলের রাস্তা-ঘাট উন্নয়ন, মাটি ভরাটসহ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ড তারা হাতে নিয়েছেন। এসব সমাজসেবামূলক কর্মকান্ড রয়ে যাচ্ছে আড়ালে। প্রচার বিমুখ কার্যক্রমগুলো সামাজের অবহেলিত মানুষরা উপকৃত হচ্ছেন।

জানা যায়, বিশ্বে চলছে মহামারি করোনা। এ মহামারির প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশে। সীমাহীন কষ্টে বসবাস করছেন দেশ ও প্রবাসের মানুষ। বিশেষ করে প্রবাসে বসবাসরত বাঙালীরা কঠিন একটি সময় পার করছেন। এ কঠিন সময়ে গ্রামীন জনগোষ্টির দুঃখ কষ্টের কথা চিন্তা করে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী, সমাজসেবী লুৎফুর রহমানসহ তার পরিবার নিয়েছেন রাস্তা-ঘাট মেরামত ও মাটি ভরাট কাজের উদ্যোগ। সম্প্রতি কয়েকদফা বন্যা ও পাহাড়ি ঢলে গ্রামীন রাস্তাগুলোর বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। যা মানুষ চলাচলে মারাত্বক ভাবে ব্যাহত হচ্ছে। সমাজসেবী লুৎফুর রহমান ছাতক উপজেলার নোয়ারাই ইউনিয়নের রাজারগাঁও গ্রামের বাসিন্দা ও ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার সামছুর রহমান সামছুর ছোট ভাই। বড় ভাই সামছু মেম্বারের মাধ্যমে ইউনিয়নের অবহেলিত কিছু গ্রামের গুরুত্বপূর্ন রাস্তায় উন্নয়নের ছুঁয়া দিতে ইতিমধ্যে বড় একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। চলতি বছরের শুরু থেকে সামাজিক উন্নয়ন মূলক এ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। তাদের হাতে নেয়া প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে ইউনিয়নের বারকাহন জামে মসজিদ থেকে চরবাড়া গ্রামের সৈয়দ আলীর বাড়ি পর্যন্ত ২.৭ কিলোমিটার রাস্তায় মাটি ভরাট কাজ। নোয়ারাই ইউনিয়নের চৌমুহনী থেকে চানপুর বাজার পর্যন্ত প্রায় ২ কিলোমিটার রাস্তায় মাটি ভরাট। কচুদাইড় জামে মসজিদের রাস্তা সংস্কার, স্কুলের রাস্তা ও কচুদাইড় স্কুলের ভিটে মাটি ভরাট কাজ। বাঁশটিলা থেকে মাগুরা নদীর পার পর্যন্ত প্রায় ১ কিলোমিটার রাস্তার সংস্কার কাজ। কচুদাইড় মুল রাস্তা থেকে মোহাম্মদ আলীর বাড়ি পর্যন্ত ৬শ’ মিটার রাস্তা সংস্কার। রাজারগাঁও পাথাইরা পাড়ার সুরুজ মিয়ার বাড়ি থেকে নওসর মিয়ার বাড়ি পর্যন্ত ৮শ’ মিটার রাস্তার সংস্কারসহ নোয়ারাই ইউনিয়নের একাধিক রাস্তার মেরামত এবং নির্মাণ পরিকল্পনা হাতে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা রাখছেন। আর এ পরিবারটি আরও ভূয়সী প্রশংসিত হচ্ছে সমাজে। গত রোববার সকালে এ প্রকল্পের মধ্যে চরবাড়া গ্রামের সৈয়দ আলীর বাড়ি সংলগ্ন থেকে বারকাহন জামে মসজিদ পর্যন্ত প্রায় ২.৭ কিলোমিটার কাঁচা রাস্তায় মাটি ভরাটের কাজের উদ্বোধন করেন প্রবাসীর ভাই সমাজসেবী ও শিক্ষানুরাগী সামছুর রহমান সামছু। এসময় ইসমাইল আলী, মাস্টার ফারুক আহমদ, আমির আলী, রমজান আলী, জালাল উদ্দিন, ইঞ্জিনিয়ার ইমতিয়াজ আহমেদ সোহেল, আখলুছ আলী মেম্বার, ফারুক মিয়া, আবদুল হাই জিতু, তারিছ মিয়া, আসমত আলী, আসলম আলী, সমছু মিয়া, নুর উদ্দিন, সানুর মিয়াসহ চরবাড়া গ্রামের শতাধিক লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

চরবাড়া গ্রামের বাসিন্দা, ইঞ্জিনিয়ার ইমতিয়াজ আহমেদ সোহেল বলেন, সুরমা নদীর তীরে গ্রামের একটি মাত্র কাঁচা রাস্তা। এ রাস্তাটি বার বার বন্যার পানিতে ভেঙ্গে যায়। উপজেলা সদরের সাথে গ্রামের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। হেমন্তে পায়ে আর বর্ষায় নদী পথে সীমাহীন কষ্টে চলাচল করতে হয়। চারদিকে উন্নয়ন হলেও চরবাড়া গ্রামটি উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত রয়েছে। গ্রামবাসীর দুঃখ কষ্টের কথা চিন্তা করে করোনার এ কঠিন সময়ে রাস্তা উন্নয়নে এগিয়ে এসেছেন সমাজসেবী, সাবেক মেম্বার সামছুর রহমান সামছুসহ তার পরিবার। এতে গ্রামবাসী খুশি। সুবিধা বঞ্চিত এ অঞ্চলকে দাতা পরিবার কর্তৃক যে ভাবে আশার আলো জ্বালিয়ে দিচ্ছেন এর পাশাপাশি রাস্তাটি আরসিসিসহ গাইডওয়াল নির্মাণে এগিয়ে আসতে স্থানীয় সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিকের প্রতি জোর দাবী জানিয়েছেন ভূক্তভোগি এলাকাবাসী।

এব্যাপারে সাবেক মেম্বার সামছুর রহমান সামছু বলেন, চাওয়া পাওয়ার কিছু নেই, সমাজসেবা একটি ইবাদত। ইবাদত মনে করে পরিবারের জমানো অর্থ ইউনিয়নের উন্নয়ন বঞ্চিত গ্রামীন জনগোষ্টির সামাজিক যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নে ব্যয় করা হচ্ছে। তিনি মেম্বার থাকাকালিন সময়ে পরিবারের অর্থ দিয়ে এলাকার উন্নয়নে ভূমিকা রেখেছিলেন এখনও এ ধারাবাহিকতা রাখার চেষ্টা অব্যাহত আছে।