• ২১শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ২০শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

ঘর নির্মাণ বা প্রদানে কোন অনিয়ম দুর্নীতি কেউ করলে আমাকে জানান:জেলা প্রশাসক

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত জানুয়ারি ২১, ২০২১
ঘর নির্মাণ বা প্রদানে কোন অনিয়ম দুর্নীতি কেউ করলে আমাকে জানান:জেলা প্রশাসক

লতিফুররহমানরাজু, সুনামগঞ্জ : সুনামগঞ্জের নবাগত জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, বাংলাদেশে মুবিজশত বর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে আট লক্ষ ৮৭ হাজার ভূমিহীন ও গৃহহীন পুনর্বাসনের জন্য ঘর প্রদান করা হবে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সর মাধ্যমে এখন পর্যন্ত নির্মিত সারাদেশে ৬৭ হাজারটি ঘর উদ্বোধন ও হস্তান্তর করবেন, সেখানে সুনামগঞ্জের ১১টি উপজেলার মধ্যে ১০টি উপজেলার ৪০৭টি ঘরও থাকবে। শুধুমাত্র দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার ১৫১টি ঘর নির্মাণ করার কথা থাকলেও বিজ্ঞ আদালতের স্থগিতাদেশের জন্য এ নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ২০২০-২১ অর্থ বছরে সুনামগঞ্জে মোট তিন হাজার ৯০৮টি ঘর তৈরি করা হবে। আমরা আশাকরি আগামী মার্চ মাসের মধ্যেই ঘরগুলোর নির্মাণ কাজ শেষ করতে পারবো।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গৃহহীন ও ভূমিহীনদের একটি ঠিকানা দিয়েছেন যার ফলে আগামী ২৩ জানুয়ারি সবার কাছে তাদের ঘর সংক্রান্ত জরুরী কাগজপত্রও দিয়ে দেওয়া হবে। এছাড়া ঘর নির্মাণে যদি কেউ কোন রকমের টাকা দাবি করলে বা ঘর নির্মাণে শ্রমিকদের মজুরী বা মালামাল খরচ চাইলে আপনারা বিষয়টি আমাকে জানাবেন।এছাড়া ঘরগুলো সঠিক ব্যক্তি পাচ্ছে কি না সে বিষয়ে আমাদের নজর রাখতে হবে। ঘর নির্মাণ ও প্রদানে কোন রকমের দুর্নীতি বা অনিময় অথবা টাকা দাবি করলে আমরা সাথে সাথে ব্যবস্থা নিবো।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসক সম্মেলনে মুজিববর্ষ উপলক্ষে সুনামগঞ্জে গৃহহীন ও ভূমিহীনদের ঘর প্রদান কার্যক্রম সম্পর্কে সুনামগঞ্জ জেলার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় সহকারি কমিশনার মো. রিফাতুল হক সুনামগঞ্জে গৃহহীন ও ভূমিহীনদের ঘর প্রদান কার্যক্রম সম্পর্কে উপস্থাপনায় জানান, সুনামগঞ্জে গৃহহীন ও ভূমিহীন ক শ্রেনীর পরিবারের সংখ্যা ১১ হাজার ২৫৪টি যার মধ্যে ২০২০-২১ অর্থ বছরে মোট তিন হাজার ৯০৮টি ঘর নির্মাণ করা হবে। এখন পর্যন্ত জেলার তাহিরপুর উপজেলায় ২৫টি. জগন্নাথপুর উপজেলায় ২৩টি, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় ৩০টি, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায় ৫০টি, ধর্মপাশা উপজেলায় ৩৪টি, দিরাই উপজেলায় ৪০টি, শাল্লা উপজেলায় ১৬০টি, ছাতক উপজেলায় ১০টি, দোয়ারাবাজার উপজেলায় ১০টি, জামালগঞ্জ উপজেলায় ২৫টি ঘরের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে।

মতবিনিময়সভায় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. শরিফুল ইসলাম, সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি লতিফুর রহমান রাজু, দৈনিক সুনামকণ্ঠের সম্পাদকম-লীর সভাপতি জিয়াউল হক, সম্পাদক বিজন সেন রায়, সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহজাহান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান তারেক প্রমুখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •