• ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২২শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

ছাতকে কালাম চৌধুরীর পাশে নেই এমপি মানিক,যে কোন অঘটন ঘটতে পারে

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত জানুয়ারি ১৫, ২০২১
ছাতকে কালাম চৌধুরীর পাশে নেই এমপি মানিক,যে কোন অঘটন ঘটতে পারে

 

বিশেষ প্রবিবেদক : আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আবুল কালাম চৌধুরীর পাশে নেই ছাতক দোয়ারার সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক।এমনকি এমপি গ্রুপের উপজেলা চেয়ারম্যান , ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও পাশে নেই বলে জানাগেছে। এতে কালাম চৌধুরীর নির্বাচনে কোন প্রভাব পড়বেনা বলে আশাবাদী কালাম চৌধুরী ও সমর্থকরা।সবকিছু ঠিক থাকলে আবারো বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন জনতার কালাম।তবে করোনাকালে স্বাস্থ্য বিধির কারণে অনেকেই প্রচারণায় অংশ নিতে পারেননি বলে এমপি মানিকের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানিয়েছে।

এদিকে নৌকায় চড়ে যারা ধানের শীষের প্রচারনা করছেন তাদের আওয়ামীলীগে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করলেন আওয়ামীলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ। ছাতক উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে এক বিশাল গণমিছিল অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

গত রোববার বিকেলে শহরের শেখ রাসেল মিনি ষ্টেডিয়াম(মন্টুবাবুর মাঠ) থেকে গণমিছিলটি শুরু হয়ে শহর প্রদক্ষিণ শেষে ট্রাফিক পয়েন্টে এসে পথসভায় মিলিত হয়।

সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক, ছাতক পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী, বর্তমান মেয়র আবুল কালাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য আজমল হোসেন সজলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত পথ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রিয় আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এড. আলহাজ্ব মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেন, আপনারা নৌকায় ভোট দিন, শেখ হাসিনা আপনাদের উন্নয়ন দেবেন। মেয়র প্রার্থী আবুল কালাম চৌধুরীকে নৌকা উপহার দিয়েছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। বিপুল ভোটের মাধ্যমে বিজয় উপহার দিয়ে এর মর্যাদা রাখুন। তিনি আরো বলেন, যারা আওয়ামীলীগের নৌকায় চড়ে ধানের শীষের প্রচার করছে তারা অবাঞ্চিত সন্তান। এসব অবাঞ্চিতদের আওয়ামীলীগে স্থান হবে না। বিগত দিনের মতো আবারো নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে আবুল কালাম চৌধুরীকে বিজয়ী করার আহবান জানান তিনি। পথ সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নূরুল হুদা মুকুট, ছাতক পৌরসভার প্রতিষ্ঠাকালীন চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল ওয়াহিদ মজনু, পরিকল্পনা মন্ত্রীর একান্ত সচিব আবুল হাসনাত প্রমুখ। এসময় যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগ নেতা শাহজাহান চৌধুরী, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক, কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য শামীম আহমদ চৌধুরী,

শেষ দিনের প্রচারনায় বের হয়ে কালাম চৌধুরী   এক ঝাঁক কর্মী-সমর্থকদের সাথে নিয়ে। সকাল থেকে তিনি পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করে ভোটারদের কাছে নৌকা প্রতীকে ভোট দেয়ার আহবান জানান। কালীবাড়ী, মন্ডলীভোগ, সোরাবনগর, হাসপাতাল রোড, বাজনামহল, কুমনা, শ্যামপাড়া, নোয়ারাই, সিমেন্ট কারখানা, লেবারপাড়া, ফকিরটিলাসহ পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডের পাড়া-মহল্লায় নৌকা প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করেন । বিকেলে আওয়ামীলীগ আয়োজিত গণ মিছিল ও নির্বাচনী জনসভায় অংশ নেন মেয়র প্রার্থী আবুল কালাম চৌধুরী। এ ছাড়া নির্বাচনী প্রচারনায় আওয়ামীলীগের কেন্দ্রিয় সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এড. মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নূরুল হুদা মুকুট, ছাতক উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক আলহাজ্ব আব্দুল ওয়াহিদ মজনুসহ জেলা-উপজেলার নেতৃবৃন্দ অংশ নিয়েছেন। প্রার্থী আবুল কালাম চৌধুরীর বিশ্বাস, উন্নয়নের পক্ষে পৌরবাসী তাদের মূল্যবান রায় প্রদান করবে। মেয়র হিসেবে তার উপর আস্তা আছে বলেই বিগত পৌরসভা নির্বাচনে পৌরবাসী তাকে টানা তিনবার পৌরপিতার আসনে অধিষ্ঠিত করেছেন।

নির্বাচন ১৯৯৭ সালে প্রতিষ্ঠিত ছাতক পৌরসভা ইতিমধ্যেই ৪টি নির্বাচনী কাল পার করে চলছে ৫ম বারের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনা। ১৯৯৯ সালে এ পৌরসভায় প্রতিষ্ঠাকালিন নির্বাচনে পৌর চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ্ব আব্দুল ওয়াহিদ মজনু। পরবর্তি ২০০৫, ২০১১ এবং ২০১৫ সালে অনুষ্ঠিত পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী আবুল কালাম চৌধুরী টানা বিজয় লাভ করেন। জন্মলগ্ন থেকেই এ পৌরসভার মেয়র পদ আওয়ামীলীগের দখলে রয়েছে। বিগত প্রতিটি নির্বাচনেই বিএনপিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলের প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেও সফল হতে পরেননি। যে কারনে ছাতক পৌর এলাকাকে আওয়ামীলীগের দূর্গ হিসেবে অনেকেই মনে করে থাকেন। এ পৌরসভায় সর্বশেষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৫ সালে ৩০ ডিসেম্বর। এ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নে নৌকা প্রতীক নিয়ে ১০ হাজার ৮২৬ ভোট পেয়ে হ্যাট্রিক বিজয় লাভ করেন আবুল কালাম চৌধুরী।

পৌরসভায় মেয়র পদ ধরে রাখতে জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন আবুল কালাম চৌধুরী ও তার কর্মী-সমর্থকরা। মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী ও সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক নেতৃত্বাধীন এখানের আওয়ামীলীগ দু’টি বলয়ে বিভক্ত থাকায় এমপি বলয়ের কোন নেতা-কর্মীকে নির্বাচনী মাঠে দেখা যায়নি। তবে সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নূরুল হুদা মুকুটসহ নেতৃবৃন্দ নৌকার পক্ষে প্রচারনায় নেমেছেন। বিগত নির্বাচন গুলোতেও আওয়ামীলীগের একটি বলয় দলীয় প্রার্থীকে অসহযোগিতা করতে দেখা গেছে।

বিগত ১৫ বছরের পৌরসভার উন্নয়নের ফিরিস্তি তুলে ধরে আওয়ামীলীগ প্রার্থী আবুল কালাম চৌধুরী বিলাত বাংলা নিউজকে  জানান, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ জুরে চলছে উন্নয়নের মহোৎসব। তার প্রানপ্রিয় ছাতক পৌরসভায়ও উন্নয়নের মহোৎসব চলমান রয়েছে। এ ছাড়া পৌর এলাকাকে তিলক্তমা শহরে পরিনত করতে ব্যাপক উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে। চলমান কাজ ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হয়ে ছাতক পৌরসভা একটি আধুনিক মডেল পৌরসভা হিসেবে রূপ নেবে। তার অসমাপ্ত ও পরিকল্পিত উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়নে এবং উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী ১৬ জানুয়ারী নৌকায় প্রতীকে ভোট প্রদানের জন্য ভোটারদের প্রতি আহবান জানান তিনি। আসন্ন ১৬ জানুয়ারীর নির্বাচনে পৌরসভার ১৯টি কেন্দ্রে ৩০ হাজার ২৮০ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। মোট ভোটারদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৫ হাজার ২৭১ জন এবং নারী বোটার ১৫ হাজার ৯জন।

১৬ জানুয়ারী নির্বাচনে স্বাধীনতার প্রতীক নৌকা বিপুল ভোটে বিজয়ী হবে বলে তিনি আশাবাদী। প্রার্থী কালাম চৌধুরীর বিশ্বাস, কোন ভয়-ভীতি বা মিথ্যাচারকে উপেক্ষা করে পৌরবাসী নৌকার বিজয় নিশ্চিত করবে। ১৬ জানুয়ারী ভোটকেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে ভোট প্রদানের জন্য তিনি ভোটারদের প্রত আহবান জানান।আসন্ন ১৬ জানুয়ারীর নির্বাচনে পৌরসভার ১৯টি কেন্দ্রে ৩০ হাজার ২৮০ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। মোট ভোটারদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৫ হাজার ২৭১ জন এবং নারী বোটার ১৫ হাজার ৯জন।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •