• ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১লা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

হেফাতে ইসলামে ভাঙনের সুর, আনাস মাদানির উদ্যোগে পালটা কমিটি হচ্ছে

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত জানুয়ারি ৩, ২০২১
হেফাতে ইসলামে ভাঙনের সুর, আনাস মাদানির উদ্যোগে পালটা কমিটি হচ্ছে

বিবিএন নিউজ ডেস্ক:  মাস দেড়েক হলো হেফাজতের নতুন কমিটি হয়েছে। আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীর নেতৃত্বাধীন কমিটিতে এরইমধ্যে ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব হয়েছেন মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদী। মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমির মৃত্যুর পর সম্প্রতি তাকে ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব নিয়োগ দেয়া হয়। কমিটির পরিসরও কিছুটা বাড়ানো হয়েছে। কিন্তু আল্লামা আহমদ শফীর মৃত্যুর পর থেকে হেফাজতে যে চাপানউতোর চলছে তা থামেনি। এরইমধ্যে প্রয়াত হেফাজত আমীরের মৃত্যুর ঘটনায় হত্যা মামলা হয়েছে হেফাজতের বর্তমান কমিটির নেতাদের বিরুদ্ধে। এ মামলা নিয়ে সরব আহমদ শফীর পরিবারের সদস্যরাও। অন্যদিকে, হেফাজতের নেতারা বলছেন, বিশেষ মহলের প্ররোচনায় তাদের চাপে রাখতেই এ মামলা হয়েছে।

এটি মিথ্যা ও সাজানো মামলা। কারণ আল্লামা শফীর স্বাভাবিক মৃত্যুই হয়েছে।
এ বিষয়ে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব নাছির উদ্দিন মুনির বলেন, তারা যেটা বলছে, সেটার বাস্তবভিত্তি নেই। একশ বছরের বয়োবৃদ্ধ, তিনি উনাদের যেমন মুরব্বি, আমাদেরও মুরব্বি। আজগুবি, বানোয়াট কথা বলছেন তারা। আমরা তাদের সেই অভিযোগ প্রত্যাখান করছি। তিনি বলেন, কমিটিতে পদ না পাওয়ায় তারা এসব বানোয়াট অভিযোগ করছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ করে বলছে, পদ দিলে তারা সেগুলো প্রত্যাহার করবে। পিবিআই মামলার তদন্ত করছে, তাদের রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে আমীর মহোদয় করণীয় নির্ধারণ করবেন।
ওদিকে, আল্লামা আহমদ শফীর ছেলে আনাস মাদানী ও তার অনুসারীরা জানিয়েছেন, সহসাই হেফাজতে নতুন কমিটি দেয়া হবে। হেফাজতে ইসলামের সাবেক কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মাঈনুদ্দিন রুহি বলেন, শিগগিরই হেফাজতের মূল ধারার কমিটি ঘোষণা করা হবে। হেফাজতের মূল ধারায় আমরা। তারা (বর্তমান কমিটি) যে কমিটি করেছে, সেটা তো কমিটি নয়। অবৈধভাবে কাউন্সিল করা হয়েছে। কাউন্সিলে ৭০ জন কাউন্সিলরকে বাদ দেয়া হয়েছে।
তিনি বলেন, আমরা সারা দেশের ওলামায়ে কেরাম, আল্লামা আহমদ শফীর মতাদর্শের সাথে আছি, তাকে অনুকরণ-অনুসরণ করে, আকিদায় বিশ্বাসী এমন লোকদের নিয়ে কমিটি ঘোষণা করবো। আমরা একটি রূপরেখা তৈরি করেছি ইতোমধ্যে। শীঘ্রই কমিটি আসছে।
এ বিষয়ে হেফাজতে ইসলামের সাবেক প্রচার স¤পাদক ও আল্লামা শফীর ছেলে আনাস মাদানী বলেন, আমরা নতুন কমিটি গঠন করবো। এর প্রক্রিয়া চলছে। বুঝে শুনে এগুতে হবে। সময় হলে সব জানতে পারবেন, জানানো হবে আপনাদেরকে। তিনি বলেন, একই নামে হবে। ভিন্ন নামে কেন হবে? সভাপতি বা আমীর মারা গেলে পুরো কমিটি বিলুপ্ত করতে হয় না। এখন কমিটি পুনর্গঠন করা হবে। কারা হবে, কি হবে, সময়ই সব বলে দিবে।

(দৈনিক মানবজমিন )

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •