• ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৭ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

ফ্রান্সে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে রাত্রীকালীন কারফিউ জারি

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত ডিসেম্বর ১৬, ২০২০
ফ্রান্সে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে রাত্রীকালীন কারফিউ জারি

 

বিবিএন নিউজ ডেস্ক: ফ্রান্সে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে জারি করা লকডাউন শিথিল করে রাত্রীকালীন কারফিউ জারি করা হয়েছে। কারফিউ অনুযায়ী রাত ৮টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত লোকজন বাড়ি থেকে বের হতে পারবেন না। বড়দিন উৎসবে এই কারফিউ কার্যকর থাকবে না, তবে নববর্ষের উৎসবে কার্যকর থাকবে। এছাড়া ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত বার ও রেস্টুরেন্ট বন্ধ থাকার নির্দেশ জারি থাকবে। বিবিসি, এপিএ।

গতকাল মঙ্গলবার ফ্রান্সে করোনায় ৭৯০ জনের মৃত্যু হয়। দেশটিতে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৯ হাজার ৭২ জনে। এখন থেকে দিনের বেলা বাইরে যেতে ফ্রান্সের অধিবাসীদের অফিসিয়াল অনুমতিপত্র প্রিন্ট করতে হবে না। তবে দৈনিক সংক্রমণ প্রায় দ্বিগুণ বৃদ্ধি পাওয়ায় রাত্রীকালীন কারফিউয়ের পাশাপাশি স্পট চেকিং অব্যাহত থাকবে।

এদিকে ফ্রান্সের প্রতিবেশী দেশ জার্মানিতে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যু নতুন রেকর্ড করায় বড়দিনের উৎসবেও সেখানে লকডাউনে কার্যকর থাকবে। নিত্য প্রয়োজনীয় নয় এমন দোকানের পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে। জার্মানিতে বার, রেস্টুরেন্ট ও বিনোদন কেন্দ্র গত নভেম্বর থেকে বন্ধ রয়েছে। কর্মীদের বাসা থেকে কাজ করানোর জন্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

জার্মানিতে ১৬ ডিসেম্বর থেকে কার্যকর করা লকডাউন চলবে ১০ জানুয়ারি পর্যন্ত। তবে বড়দিন উপলক্ষ্যে ২৪ থেকে ২৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত লকডাউন কিছুটা শিথিল থাকবে। এ সময় কেউ তার বাড়িতে সর্বোচ্চ চারজন পর্যন্ত অতিথিকে আমন্ত্রণ জানাতে পারবেন।