• ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১লা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

ইংল্যান্ডে ৮ লাখ ১৯ হাজার মানুষ বেকার

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত ডিসেম্বর ১৫, ২০২০
ইংল্যান্ডে ৮ লাখ ১৯ হাজার মানুষ বেকার

বিবিএন নিউজ ডেস্ক : করোনা মহামারীর কারণে গত ফেব্রুয়ারী থেকে নভেম্বর পর্যন্ত ব্রিটেনে বিভিন্ন কোম্পানীর বেতনভুক্ত প্রায় ৮ লাখ ১৯ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী চাকুরী হারিয়েছেন। এর প্রায় অর্ধেকই অর্থাৎ ৪ লাখ ৫৬ হাজার ৮শ ৩৭ জন রিটেইল এবং হসপিটালিটি ইন্ডাস্ট্রির বলে জানিয়েছে দ্যা অফিস ফর ন্যাশনাল স্টেটিসটিকস সংক্ষেপে ওএনএস।
অক্টোবরে ব্রিটেনে রেকর্ড সংখ্যক রিডানডেন্ট হয়েছে। অক্টোবর থেকে গত তিন মাসে রিডানডেন্সির সংখ্যা বেড়ে ৩ লাখ ৭০ হাজারে গিয়ে পৌঁছেছে। সব মিলিয়ে এই তিন মাসে ব্রিটেনে চাকুরী হারিয়েছে আরো প্রায় ১ দশমিক ৭ মিলিয়ন মানুষ। ফলে ব্রিটেনে বর্তমানে বেকারত্বের হার ৪ দশমিক ৯ শতাংশে গিয়ে দাঁড়িয়েছে।
দ্যা অফিস ফর ন্যাশনাল স্টেটিসটিকস জানিয়েছে, করোনায় সবচাইতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে হসপিটালিটি এবং রিটেইল ইন্ডাস্ট্রি। করোনার কারণে বেকারত্বের হার বাড়ার পাশাপাশি ব্রিটেনে কর্মসংস্থানও খালি হচ্ছে। বৃটেনে অক্টোবর থেকে গত তিন মাসে ৫ লাখ ৪৭ হাজার কর্মসংস্থান খালি রয়েছে। এই সংখ্যা আগের তিন মাসের চাইতে ১ লাখ ১০ হাজার বেশি।
এদিকে দ্বিতীয় দফায় ৪ সপ্তাহের জাতীয় লকডাউন শেষে গত ২ ডিসেম্বর পুনরায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলা হয়েছিল। তবে লকডাউন শিথিল করা হলেও ইংল্যান্ডে তিন স্তরের করোনা বিধি-নিষেধ আরোপ করেছিল সরকার। এরমধ্যে উত্তর ইংল্যান্ড, মিডল্যান্ডসসহ বেশিরভাগ এলাকায় করোনার সর্বোচ্চ বিধি নিষেধ টিয়ার থ্রি আরোপিত রয়েছে। সর্বশেষ মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টা থেকে লন্ডনের ৩২টি বারা, এসেক্স এবং হাটফোর্ডশায়ারের কিছু অংশে টিয়ার থ্রি আরোপ করা হবে। সব মিলিয়ে বুধবার থেকে ইংল্যান্ডে প্রায় ৩৪ মিলিয়নের বেশি মানুষ করোনার সর্বোচ্চ বিধি নিষেধ টিয়ার থ্রি’র মধ্যে বসবাস করবেন। এছাড়া ওয়েলস, স্কটল্যান্ড এবং নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডে আলাদা আলাদাভাবে করোনার সর্বোচ্চ বিধি নিষেধ আরোপিত রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •