• ২১শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ২০শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

ডিজেবল বেনিফিট প্রতারণা:সুস্থ্য মা এবং কুস্তিগীর ছেলের জেলদন্ড

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত ডিসেম্বর ৪, ২০২০
ডিজেবল বেনিফিট প্রতারণা:সুস্থ্য মা এবং কুস্তিগীর ছেলের জেলদন্ড

বিবিএন নিউজ ডেস্ক : উত্তর ইংল্যান্ডের ব্ল্যাকবার্নের বাসিন্দা ৫১ বছর বয়সী মা খালিদা জারিফ এবং ছেলে সাকিব জারিফকে ডিজেবল বেনিফিট নিয়ে প্রতারণার দায়ে আলাদা আলাদাভাবে জেলদন্ড দিয়েছে প্রেস্টন ক্রাউন কোর্ট। খালিদা জারিফ এবং তার তিন ছেলে মিলে প্রতারণার মাধ্যমে ডিজেবল বেনিফিটের প্রায় ৫১ হাজার পাউন্ড আত্মসাত করেছেন।
আদালত জানিয়েছে, ২০১৬ সালের অগাস্ট থেকে ২০১৯ সালের এপ্রিল পর্যন্ত প্রায় ১৩ হাজার ৫শ পাউন্ড ডিজেবল বেনিফিট গ্রহণ করেছেন সাকিব জারিফ। ২০১৫ সালে শারীরিকভাবে আঘাত প্রাপ্ত হয়ে নিজে একা চলাফেরা করতে পারেন না, খেতে পারেন না, গাড়ি চালাতে পারেন না বলে ডিজেবল বেনিফিটের আবেদন করেন সাকিব। পরবর্তীতে পুলিশী তদন্তে বেরিয়েছে সাকিব শুধু একা চলাফেরা করতে পারেন, গাড়ি চালাতে পারেন, নাচতে পারেন এবং রেসলিংয়েও অংশ নিয়েছেন। নিজে প্রতারণার মাধ্যমে ডিজেবল বেনিফিট গ্রহণের পাশাপাশি মৃত প্রতিবেশির বেনিফিটও চুরি করে পকেটস্থ করার কথাও আদালতে স্বীকার করেছেন সাকিব। তাকে ১৫ মাসের জেলদন্ড দিয়েছে আদালত।

সাকিবের মা ৫১ বছর বয়সী খালিদা জারিফ ২০১৫ সালে ডিজেবল বেনিফিটের জন্যে আবেদন করেন। আবেদনে তিনি বলেছেন, মারাত্মক ব্যাক পেইন, আত্রাইটিস, হার্ট এ্যাটক, ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার ফলে একেবারেই চলাফেলা করতে পারেন না। হাটা চলা করতে হলে অন্যের সহযোগিতা বা জিমার ফ্রেইম অথবা হুইল চেয়ারের প্রয়োজন হয়। কিন্তু পুলিশী তদন্তে দেখা গেছে, তিনি গাড়ি থেকে শপিং নিয়ে একা একাই হেটে ঘরে যাচ্ছেন। মিথ্যা কারণ দেখিয়ে প্রায় ২৪ হাজার পাউন্ড ডিজেবল বেনিফিট আত্মসাত করেছেন খালিদা জারিফ। তাকে ১ বছরের জেলদন্ড দিয়েছে আদালত।

বেনিফিট নিয়ে প্রতারণার দায়ে খালিদা জারিফের আরো দুই ছেলে ৩১ বছর বয়সী ফয়সাল জারিফ এবং ২০ বছর বয়সী আতিফ জারিফকেও সাজা দিয়েছে আদালত।

ডিজেবল মা ও ভাইয়ের কেয়ারার হিসেবে ফয়সালকে অতিরিক্ত১১ হাজার ৪শ ২৫ পাউন্ড এবং আতিফকে ২ হাজার ৫শ পাউন্ড পরিশোধ করেছে ডিডাব্লিউপি। তাদেরকে আলাদা আলাদাভাবে দন্ড দিয়েছে আদালত।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •