• ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১৬ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

লালমনিরহাটে পবিত্র কোরআন ও মসজিদ অবমাননার অভিযোগে যুবককে পুড়িয়ে হত্যা

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত অক্টোবর ২৯, ২০২০
লালমনিরহাটে পবিত্র কোরআন ও মসজিদ অবমাননার অভিযোগে যুবককে পুড়িয়ে হত্যা

 

 

বিবিএন নিউজ ডেস্কঃ লালমনিরহাটের পাটগ্রামের বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদের সামনে এক জনকে পিটিয়ে হত্যা করেছে স্থানীয়রা। আজ বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, উপজেলার বুড়িমারী ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় বাজার মসজিদে অজ্ঞাত দুই ব্যক্তি প্রবেশ করে আসরের নামাজ আদায় করে। নামাজ শেষে উপস্থিত মুসল্লি ও ইমামকে একটি সংস্থার পরিচয় দিয়ে মসজিদের ভিতরে থাকা অস্ত্র বের করতে বলেন। একপর্যায়ে তারা নিজেরাই মসজিদে অস্ত্র খুঁজতে থাকেন। এ সময় র‌্যাকে রক্ষিত কোরআন শরীফ নিচে পড়লে তারা কোরআন শরীফের উপর পা রেখেই অস্ত্র খুঁজতে থাকে। এ দৃশ্য দেখে মসজিদে থাকা মুসল্লিরা উত্তেজিত হয়ে ওঠেন। পরে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও কয়েক জন মুসল্লি ওই দুই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদের ভিতরে নিয়ে যান।

এদিকে কোরআন শরীফে পা রাখার খবর ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত মুসল্লিরা বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদ ঘেরাও করে। এ সময় বিজিবি ও পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে তাদের শান্ত করার চেষ্টা করেন। পরবর্তীতে মুসল্লীদের আরো একটি বিশাল বিক্ষোভ মিছিল এসে ইউনিয়ন পরিষদের দরজা ভেঙ্গে হামলা করেন। এসময় তারা এক ব্যক্তিকে পেয়ে হামলা মারধোর শুরু করেন। এসময় তাদের পিটুনিতে ওই ব্যক্তি মারা যান। অতঃপর লাশ টেনে পরিষদের বাহিরে এনে পেট্রোল ও লাকড়ী দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে আরো অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবি গিয়ে অপর ব্যক্তিকে উদ্ধার করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এ ব্যাপের লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর মোবাইল ফোনে জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ, বিজিবির পাশাপাশি র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

(ছবি:অনলাইন থেকে নেয়া)