• ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

নিষেধাজ্ঞা শেষে যা বললেন সাকিব

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত অক্টোবর ২৮, ২০২০
নিষেধাজ্ঞা শেষে যা বললেন সাকিব
বিবিএন স্পোর্টস ডেস্কঃ ২০১৯ সালের ২৯ই অক্টোবর এক বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন সাকিব। ক্রিকেট ক্যারিয়ারে এই একটা বছর সাকিবের জন্য সম্ভবত সবচেয়ে দীর্ঘ এবং কষ্টের। সেই লম্বা সময় এবং কষ্ট শেষ হচ্ছে আগামীকাল বৃহস্পতিবার। এদিন থেকেই সাকিব আবার আর্ন্তজাতিক ক্রিকেটে ফিরছেন, আইসিসির নিষেধাজ্ঞার বেড়াজাল পেরিয়ে। ক্রিকেটে ফেরার এই আনন্দের সময় সাকিব এখন নিউইয়র্কে। বিদেশে থাকলেও সাকিব এই আনন্দে ফেরার সময়টা ঠিকই উপভোগ করেছেন প্রবাসীদের সঙ্গে। নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার প্রাক্কালে সাকিবের সন্মানে বুধবার এক সম্বর্ধনার আয়োজন করেন নিউইয়র্ক শো-টাইম মিউজিকের কর্ণধার আলমগীর খান আলম।
এমন আয়োজনের জন্য সাকিব প্রবাসীদের প্রতি তার কৃতজ্ঞতা জানান। ধন্যবাদ জানিয়ে সাকিব বলেন-‘এই করোনার সময়ে আমরা অনেকেই আমাদের পরিচিতজনদের হারিয়েছি।

আমি সবার আগে তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। এই কঠিন সময়ে আমরা যারা এখনো সুস্থ আছি, তারা যেন সবাই সুস্থতার সঙ্গে থাকতে পারি সেজন্য যথাযথ বিধি বিধান মেনে চলতে হবে। এই দুযোর্গের সময়ে আমাদের যার যার যে দায়িত্বগুলো আছে সেগুলো যেন পালন করে চলতে পারি। নিজেরা যেন করোনায় আক্রান্ত না হই, আবার সেই সঙ্গে অন্য কাউকেও যেন আক্রান্ত না করি- তেমনই সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। আর এভাবেই আমরা এই যুদ্ধে জয়ী হতে পারি বলে আমি মনে করি। আপনারা যারা আজ এখানে এসেছেন তাদের সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ। আলম ভাইকে বিশেষ ধন্যবাদ। যখনই আমি নিউইয়র্কে আসি, আপনাদের সবার সঙ্গে দেখা হয়ে যায়। এটা আমার জন্য খুবই বড় একটা পাওয়া। আপনাদের আন্তরিকতা ও ভালবাসা সবসময় আমার অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করে। আশা করছি এই আন্তরিকতা, ভালবাসা ও সমর্থন সবসময় আপনারা আমাকে ও বাংলাদেশ ক্রিকেট দেবেন। এভাবে আমরা দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবো।’
নভেম্বরের মাঝামাঝি বিসিবি পাঁচ দলকে নিয়ে ঘরোয়া টি- টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের আয়োজনের পরিকল্পনা কষছে। সেই টুর্নামেন্ট দিয়েই সাকিবের ক্রিকেটে ফেরার কথা। বিসিবির সেই টুর্নামেন্টে খেলতে সাকিব নভেম্বরের শুরুতে দেশে ফিরবেন বলে বিসিবি জানিয়েছে।
আগামীর পরিকল্পনা জানিয়ে অনুষ্ঠানে সাকিব বলেন, ক্রিকেটে ফিরতে হলে আমাকে দ্রুত দেশে ফিরতে হবে। এরপর বিসিবির সঙ্গে বসেই সকছিুই ঠিক করবো। ক্রিকেটে নিষিদ্ধ থাকলেও নিয়মিত বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ও ক্রিকেট অপরারেন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খানের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ ছিলো বলেন জানান বাংলাদেশের ক্রিকেটের এই পোস্টার বয়(দৈনিক মানবজমিন)