• ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

সিলেট এমসি কলেজে গণধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০
সিলেট এমসি কলেজে গণধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা

 

বিবিএন নিউজঃ  সিলেট এমসি কলেজের হোস্টেলে ধরে নিয়ে স্বামীকে বেধে স্ত্রীকে গণধর্ষণ করেছে সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষণকরা সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক রনজত সরকারের অনুসারী।

সিলেটের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে তরুণীকে গণধর্ষণের সাথে ছাত্রলীগের যে ৬জন নেতা জড়িত ছিলো তাদের বিস্তারিত পাওয়া গেছে।এরা হলো -এমসি কলেজ ছাত্রলীগের নেতা ও কলেজটিতে ইংরেজিতে মাস্টার্সে অধ্যয়রত শাহ মাহবুবুর রহমান রণি,একই বিভাগে অধ্যয়নরত ছাত্রলীগ নেতা মাহফুজুর রহমান মাছুম, এমসি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা এম সাইফুর রহমান, কলেজ ছাত্রলীগ নেতা অর্জুন এবং বহিরাগত ছাত্রলীগ নেতা রবিউল ও তারেক।
এদের মধ্যে সাইফুর রহমানের বাড়ি বালাগঞ্জে, রবিউলের বাড়ি দিরাইয়ে, মাহফুজুর রহমান মাছুমের বাড়ি কানাইঘাট উপজেলার গাছবাড়ি এলাকায়, অর্জুনের বাড়ি জকিগঞ্জে, রণি হবিগঞ্জের এবং তারেক জগন্নাথপুরের বাসিন্দা।

শুক্রবার স্বামী-স্ত্রী সিলেটের এমসি কলেজ ঘুরতে যান। রাত ৮টার দিকে স্বামীর কাছ থেকে স্ত্রীকে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে ছাত্রলীগের নেতারা। স্বামী প্রতিবাদ করলে তাকে মারধর শুরু করে ছাত্রলীগ নেতারা। এক পর্যায়ে তরুণী ও তার স্বামীকে এমসি কলেজের হোস্টেলে নিয়ে যান। সেখানে স্বামীকে বেঁধে ছাত্রলীগের ৬ জন নেতাকর্মী স্ত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ছাত্রলীগের হায়নাদের গণধর্ষণের শিকার স্ত্রী বর্তমানে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি সেন্টারে রয়েছে।