• ২৪শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১০ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২১শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে ৭ ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাপ,কেন্দ্রে লবিং

bilatbanglanews.com
প্রকাশিত জানুয়ারি ৪, ২০২২
সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে ৭ ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাপ,কেন্দ্রে লবিং
লতিফুররহমানরাজু , সুনামগঞ্জ:তাহিরপুর উপজেলার ৭ টি ইউনিয়ন সহ নির্বাচন কমিশন থেকে সপ্তম ধাপে দেশের মোট ১৩৮ টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার করেন। নির্বাচন কমিশন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পর থেকেই তাহিরপুর উপজেলার তাহিরপুর সদর, বালিজুরী, উত্তর বাদাঘাট, উত্তর বড়দল, দক্ষিণ বড়দল, উত্তর শ্রীপুর ও দক্ষিণ শ্রীপুর ওই ৭ ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়েছে। জানাযায়, আগামী ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২ ইং তারিখে তাহিরপুর উপজেলার ৭ ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।এবং প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ১২ জানুয়ারি, মনোনয়নপত্র বাছাই ১৫ জানুয়ারি, প্রার্থীতা প্রত্যাহার ২২ জানুয়ারি এবং ভোটগ্রহণ ৭ ফেব্রুয়ারী। এরই মধ্যে ওই ৭ ইউনিয়নে বিএনপিদলীয় কোনো প্রার্থীর দলীয়ভাবে নির্বাচনে না গেলেও তারা যাচ্ছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে।
আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের দলীয় মনোনয়নের যুদ্ধে মাঠে  আছেন ।প্রার্থীরা তৃণমূল নেতাকর্মীদের পাশাপাশি জোর লবিং চালাচ্ছেন কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গেও। ইতিমধ্যে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশি ৭ ইউনিয়নের সকল চেয়ারম্যান প্রার্থীই ঢাকায় অবস্থান করে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করছেন। তবে এবারের নির্বাচনে তাহিরপুর উপজেলার ৭ ইউনিয়নে কে পাচ্ছেন নৌকা প্রতীক- কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি  এখন এটাই এ উপজেলার গ্রামে গঞ্জে হাটবাজার ও সাধারণ ভোটারদের মুখে মুখে চলছে গুঞ্জন। ৭ ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পূর্ব থেকেই ভোটারদের বিভিন্ন উন্নয়ন আর প্রতিশ্রুতি দিয়ে কাছে  টানতে ঘুরে বেড়াচ্ছেন গ্রাম থেকে গ্রামান্তরে। শুধু তাই নয়!  বিভিন্ন হাটবাজার, পাড়া মহল্লায় তাদের কর্মীসমর্থকরা তাদের পছন্দের প্রার্থীদের ছবি সম্বলিত বিভিন্ন রং বেরঙের পোস্টার, ব্যানার ও লিফলেট টানিয়ে তাদের পক্ষে প্রচারণা চালানো হচ্ছে খুব জোড়ে সোরে। তবে প্রথমদিকে তাহিরপুর উপজেলার ৭ ইউনিয়ন নির্বাচনে বিএনপি থেকে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম শোনা গেলেও এখন কৌশলগত কারণে  স্বতন্ত্রপ্রার্থী হচ্ছেন। তবে ৭ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রায় আর্ধশতাধিক প্রার্থী ইউনিয়ন নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেতে জোর তদবির ও লবিং চালাচ্ছেন । আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন দৌড়ে ও সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন, উত্তর বাদাঘাট ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশিত বর্তমান চেয়ারম্যান ও বাদাঘাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক মোহাম্মদ আফতাব উদ্দিন , সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নিজাম উদ্দিন, এবং নিজাম উদ্দিনের আপন ফুপাত ছোট ভাই সুনামগঞ্জ জেলা শাখার জাতীয় শ্রমিকলীগের সহ সাধারণ সম্পাদক বোরহান উদ্দিন। বড়দল উত্তর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশি সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মোঃ জামাল উদ্দিন, ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি মোঃ মাসুক মিয়া এবং বিএনপি সমর্থীত স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, তারই আপন ছোট ভাই ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি রুহুল আমিন। বড়দল দক্ষিণ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশি তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক হাজ্বী ইউনুস আলী, জাতীয় শ্রমিকলীগ তাহিরপুর উপজেলা শাখার সদস্য সচিব হাজ্বী আব্দুল কুদ্দুস আলম, বড়দল দক্ষিণ ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি সাইফুল ইসলাম, ইউনিয়ন কৃষকলগী সভাপতি ডাঃ রহমত আলী, আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ এবং বিএনপির সমর্থীত স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আছেন সাবেক চেয়ারম্যান সবুজ আলম। বালিজুরী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশিত সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আতাউর রহমান,  বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক এবং স্থলবন্দর শ্রমিক লীগের  সাধারণ সম্পাদক মোঃ আজাদ হোসাইন, তাহিরপুর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক সামায়ুন কবির, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক  ও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি মিলন তালুকদার এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আছেন বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুর জহুর তালুকদার। তাহিরপুর সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশিত সাবেক চেয়ারম্যান ও সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য মোতাহার হোসেন আখঞ্জি শামীম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর খোকন, আওয়ামী লীগ নেতা অনুপ রায়। এবং এই ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আছেন বর্তমান চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন,  বাচ্চু মিয়া, আতিকুর রহমান আতিক, হুসাইন শরিফ বিপ্লব এবং বিএনপি নেতা জুনাব আলী। শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশি হলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদের  সদস্য এবং সাবেক চেয়ারম্যান আবুল হোসেন খান, জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি আবুল খায়ের, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি জাবির আহমদ জাবেদ, এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আছেন তাহিরপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি আলী হায়দার ও ওই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আমির আলীর পুত্র ছালে আহমেদ সবুজ। শ্রীপুর দক্ষিণ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশি হলেন, ওই ইউনিয়নের সাবেক যুবলীগ সভাপতি বর্তমান চেয়ারম্যান বিশ্বজিৎ রায়, জেলা আওয়ামী সদস্য আতিকুর রহমান আতিক,  উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নজরুল ইসলাম মাসুক, কৃষ্ণ গোপাল তালুকদার মানব। এবং বিএনপির সমর্থীত স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আছেন শামীম আহমদ মুরাদ, এডভোকেট মানিক মিয়া। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে থেকে তারা সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে নিজেদের প্রার্থিতা জানান দিচ্ছেন। এ ছাড়া তৃণমূল নেতাকর্মীদের নিয়ে দলীয় মনোনয়ন পেতে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে চালাচ্ছেন জোর লবিং। নিজ নিজ অবস্থান থেকে দলীয় মনোনয়ন পেতে আশাবাদী সবাই।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •